দেশনিউজ

ছেলে আয় না করা পর্যন্ত তার দায়িত্ব নিতে হবে বাবাকেই, বড়সড় রায় দান দিল্লি হাইকোর্টের

ছেলের 18 বছর হয়ে যাওয়া মানেই বাবার সমস্ত দায়িত্ব শেষ হয়ে যাওয়া তেমনটা নয়, পড়াশোনা ও অন্যান্য খরচ শুধুমাত্র মায়ের ওপর পরতে পারে না। মঙ্গলবার একটি মামলার শুনানিতে এমনই রায় দিল দিল্লি হাইকোর্ট (Delhi high court)।

এদিন একটি বিবাহ বিচ্ছেদ মামলা শুনানিতে (Divorce case hearing) দিল্লি হাইকোর্ট তরফে বলে দেওয়া হল যে, ছেলের আঠারো বছর বয়স পেরোলেই বাবা সমস্ত দায়িত্ব থেকে সরে যেতে পারেন না। যতক্ষণ না ছেলে স্নাতক শেষ করছে এবং কিছু রোজগার করছে ততদিন বাবার সন্তানের প্রতি দায়িত্ব থাকবে।

পাশাপাশি এই রায়ে মহিলাকে মাসিক 15 হাজার টাকা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে আদালত। এই টাকার দ্বারা মহিলা ছেলের পড়াশুনার খরচ সহ অন্যান্য খরচ চালাতে পারবে। এদিন আদালতে তরফ থেকে স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়, মায়ের একার হাতে সন্তানের সমস্ত খরচের বোঝা দিয়ে দেওয়া যুক্তিযুক্ত নয়। বিচ্ছেদের পরেও যদি স্বামীরা কন্যা সন্তানের জন্য খরচ দিতে পারে তবে পুত্র সন্তানের ক্ষেত্রেও দিতে হবে।

বিচারপতি সুব্রহ্মণ্য প্রসাদ (Subrahmanya Prasad) সংবাদসংস্থা পিটিআইকে (PTI) বলেন, “ছেলে 18 বছর পেরিয়ে গিয়েছে কিন্তু স্নাতক শেষ করেনি এবং চাকরিও পাইনি সেই ক্ষেত্রে একজন মহিলাকে ওই ছেলে যাবতীয় খরচ টানতে হত, পারিবারিক আদালত এই ধারণার সাথে সহমত নয়, বাবাকেও কিছু দায়িত্ব নিতে হবে। মহিলা যদি কর্মরতও হন তবেও ছেলেকে মানুষ করে তোলার ক্ষেত্রে মাসিক বেতন যথেষ্ট নয়।”

Tags

Related Articles

Close