আন্তর্জাতিকনিউজ

এটাই হল ১৬৪ বছরের সবচেয়ে বড় ভয়ংকর ঝড়, রইল ভিডিও

পশ্চিমবঙ্গে আমফানের যা গতিবেগ ছিল তার থেকে অনেক বেশি গতিবেগ সম্পন্ন ও ভয়ঙ্কর হ্যারিকেন ‘লরা’। বৃহস্পতিবার রাত ১ টা নাগাদ আমেরিকার লুইজিয়ানার উপকূলে আছড়ে পড়েছিল হ্যারিকেন লরা। প্রতি ঘণ্টায় গতিবেগ ছিল ২০০ কিলোমিটারের  বেশি। এই ঝড়ে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে লুইজিয়ানার বিস্তীর্ণ এলাকা। সবকিছু একেবারে লন্ডভন্ড করে দিয়েছে। তার সাথে জলমগ্ন হয়ে গেছে এলাকা। বেশ কিছু জনের মৃত্যু হয়েছে বলেও জানা গেছে।

তবে এই ভয়ঙ্কর ঝড়ের ভিতরের ছবি সম্প্রতি সামনে এনেছেন ‘হ্যারিকেন হান্টার’ নিক আন্ডারউড। তিনি আমেরিকার ন্যাশনাল ওশিয়ানিক অ্যান্ড অ্যাটমোস্ফিয়ার অ্যাডমিনিট্রেশনের সঙ্গে হ্যারিকেন চেজিং বিমানে করে গিয়েছিলেন হ্যারিকেন লরার ভিতর। আর সেই ভিডিয়ো তিনি বৃহস্পতিবার আপলোড করেছেন নিজের টুইটার হ্যান্ডেলে।

তিনি ভিডিও আপলোড করার সাথে ক্যাপশনে লিখেছেন, “আজ লরার ভিতর পাঁচ বার প্রবেশ করেছি। দ্বিতীয়বার যাওয়ার পর তৃতীয়বারের যাওয়ার জন্য প্রস্তুতির সময়ের ভিডিয়ো এটি। আজকে এই পাঁচবার নিয়ে জীবনে মোট ৬১ বার হ্যারিকেনের ভিতর প্রবেশ করলাম ।’ এই ভিডিও প্রকাশ্যে আসতেই ভাইরাল হয়ে যায়। ভিডিও দেখে হ্যারিকেন নিয়ে অনেক বেশি উৎসুক হয়েছেন মানুষজন। তবে তিনি এই ঝড়ের ভিতরে প্রবেশ করে হ্যারিকেন সম্পর্কে বিভিন্ন তথ্য সংগ্রহ করেছেন। যা ভবিষ্যতে অনেক কাজে লাগবে। তাঁর এই দুঃসাহসিক কাজের জন্য কুর্নিশ জানিয়েছেন নেটিজেনরা।

দেখুন সেই ভিডিও-

Tags

Related Articles

Close