কলকাতানিউজ

আমি বাঁচতে চাই, শারীরিক-মানসিক নির্যাতন করা হয়েছে, ফেসবুক লাইভে এসে বিস্ফোরক আর্তি মদন মিত্রের পুত্রবধূর

মদন মিত্র, ‘দ্য ক্রাশ অফ বেঙ্গল’কে নিয়ে সবসময় চর্চায় মুখর থাকে সোশ্যাল মিডিয়া কিন্তু এবার তার পরিবারে নেমে এল অভিযোগের ঝড়। নতুন গান, ফ্যাশনের জন্য সবসময় লাইমলাইটে থাকলেও মদন মিত্রকে এবার পড়তে হলো চরম দোটানার মুখে। তার বড়ো ছেলের ওপর এলো শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগ। আর এমন অভিযোগ আনলেন তার বড়ো পুত্রবধূ। ফেসবুকে ভিডিও বানিয়ে আপলোড করে সকলের কাছে বিচার চাইলেন।

মদন মিত্রের বড়ো পুত্রবধু স্বাতী রায় তার নিজের স্বামীর নামে শারীরিক ও মানসিক অত্যাচারের অভিযোগ আনলেন। একটি ফেসবুক ভিডিওর মাধ্যমে তিনি একথা জানান। ফেসবুক ভিডিওটিতে তিনি বলেছেন, 2014 তে তাদের বিয়ে হয় কিন্তু বিয়ের পর থেকেই তার ওপর চলতে থাকে নানা মানসিক ও শারীরিক নির্যাতন। তিনি তার স্বামীকে একজন ‘সাইকোপ্যাথি’ বলেও অভিহিত করেছেন। এছাড়াও তিনি আরো বলেছেন মদ্যপ অবস্থায় তার গায়ে হাত তোলেন তার স্বামী এবং সঙ্গে চলতে থাকে অকথ্য গালিগালাজ। মদন মিত্র ও তার স্ত্রী বহুবার তাকে অত্যাচার থেকে বাঁচানোর চেষ্টা করলেও তিনি নিস্তার পাননি।

এই মার ও যন্ত্রণা থেকে মুক্তি পেতে 2019 সালে তিনি বাড়ি থেকে বেরিয়ে বাপের বাড়িতে গিয়ে থাকা শুরু করেন। কিন্তু সেখানেও চলতে থাকে তার স্বামীর চোখরাঙানি ও নানা হুমকি। তারা প্রায় আড়াই বছর ধরে আলাদা থাকেন কিন্তু তৎসত্ত্বেও চলতে থাকে তার স্বামীর হুমকি ও অত্যাচার । তিনি আত্মহত্যা করারও চেষ্টা করেছিলেন এবং হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন বহুবার। তিনি এমন কথার সাপেক্ষে প্রমাণ দিতেও প্রস্তুত এমনটাই জানিয়েছেন ভিডিওটিতে।

স্বাতী দেবী জানান এমন অত্যাচার থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য তিনি বহুবার আত্মহত্যা করার চেষ্টা করেছেন কিন্তু তাদের একটি ছোট্ট ছেলে থাকাই, তিনি নিজেকে আর শেষ করতে পারেননি। তাই তিনি এর বিচার চেয়েছেন। চেয়েছেন মুক্তি এই নৃশংসতা থেকে। এই বিষয়ে মদন মিত্রকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে তিনি জানান, “এটি সম্পূর্ণ তার ছেলের ব্যাপার। আর তিনি এই ব্যাপারে বেশি খবর রাখেন না। তিনি রাজনীতি নিয়েই ব্যস্ত থাকেন সারাদিন”। তিনি আরও বলেছেন “আইনের উর্ধ্বে কেউ নয়, আইনে যা আছে তাই হবে”।

Tags

Related Articles

Close