নিউজবিনোদন
Trending

সুশান্ত মামলায় চাঞ্চল্যকর মোড়, ফাঁস হল AIIMS-এর চিকিৎসকের অডিওটেপ

গত ১৪ জুন সকলে অবাক হয়ে যায় বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর খবর শুনে। অভিনেতার নিজের ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার হয়েছিল তার ঝুলন্ত দেহ। আত্মহত্যা নাকি খুন সেই প্রশ্নের উত্তর জানতে আজও অপেক্ষা করছে সুশান্ত অনুরাগীরা। সম্প্রতি AIIMS সুশান্তের খুনের তত্ত্ব খারিজ করে আত্মহত্যা বলেই মত দিয়েছে। আর এবার প্রকাশ্যে AIIMS-র চিকিৎসকের এক অডিওটেপ। যা ঘিরে তুঙ্গে তরজা।

সুশান্তের মৃত্যুর পরেই খুলে যায় বলিউডের এক অজানা পর্দা। ইতিমধ্যেই মাদক যোগে গ্রেফতার করা হয়েছে সুশান্তের বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তী কে। রিয়া গ্রেফতারের পরই অভিনেত্রী মুখ খুলেছে বলিউডের মাদক যোগ নিয়ে। আর সেই মাদকচক্রে নাম জড়িয়েছে বলিউডের তাবড় তাবড় সেলেবদের। ইতিমধ্যেই মাদকের সঙ্গে যুক্ত থাকার জন্য জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে দীপিকা পাড়ুকোন, সারা আলি খান থেকে শ্রদ্ধা কাপুরকে।

এইসব নিয়ে যখন সরগরম বলিউড অন্যদিকে তখন সুশান্ত মৃত্যু রহস্যে, প্রাথমিক ময়নাতদন্তের পর সুশান্তের ভিসেরা রিপোর্টের দায়িত্ব চিকিৎসক সুধীর গুপ্তর নেতৃত্বে নেয় AIIMS-র ফরেনসিক টিম। এরপর ভিসেরা রিপোর্ট CBI-এর তদন্তকারী দলের হাতে তুলে দেওয়া হয় AIIMS টিমের পক্ষ থেকে। সূত্রের খবর, ডা. সুধীর গুপ্ত ও তাঁর টিম খুনের তত্ত্ব খারিজ করে সুশান্তের মৃত্যুকে আত্মহত্যা বলেই মত দিয়েছে। সুশান্তের ভিসেরা ও ময়নাতদন্তের রিপোর্ট খতিয়ে দেখার পর চিকিৎসক সুধীর গুপ্তা জানান,’সুশান্তের শরীরে কোনও আঘাতের চিহ্ন ছিল না। শরীরে কোনওরকম মারপিটের আঘাত বা চিহ্নও পাওয়া যায়নি। এমনকী সুশান্ত মৃত্যুর সময় যে কাপড় পরে ছিলেন তাতেও কোনও রকম এই ধরণের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। খুনের কোনও রকম চিহ্ন কোথাও নেই’।

AIIMS-র তরফে যখন জানিয়ে দেওয়া হয়, সুশান্তের মৃত্যু কোনও ভাবেই খুন নয়, আর তখনই ফাঁস হয় সুধীর গুপ্তার একটি অডিওটেপ। ভাইরাল হওয়া সেই অডিওটেপে শোনা যাচ্ছে, ডঃ সুধীর গুপ্তা বলছেন, সুশান্তকে খুন করা হয়েছে। সুশান্তের মৃতদেহের ছবি দেখে এই মন্তব্য করেছিলেন ডঃ সুধীর গুপ্তা এক সংবাদমাধ্যমের রিপোর্ট সূত্রে খবর। কিন্তু এই অডিওটেপ প্রকাশ্যে আসার পর থেকেই উত্তাল দেশ। ফের নতুন করে ফরেনসিক তদন্তের দাবি তুলেছে সুশান্তের পরিবার।

Tags

Related Articles

Close