×

মাত্র ৭ হাজার টাকা দিয়ে রেলের সঙ্গে শুরু করুন নিজের স্বাধীন ব্যবসা, প্রতিমাসে আয় হবে ৫০ হাজার টাকা

করোনা ও তার পরবর্তী সময়ে কাজ হারিয়েছেন বহু মানুষ। তাছাড়া আমাদের দেশে প্রতিবছর তৈরি হচ্ছে প্রচুর শিক্ষিত বেকার। তো ভারতীয় রেল শুধুমাত্র যাত্রী পরিষেবার উপরেই নজর রাখেনা, সাথে দেশের যুবসমাজকে বিপুল আয়ের সুবিধাও দিচ্ছে তারা। তাই আপনিও যদি কাজ হারিয়ে থাকেন বা বেকার হন তাহলে এই প্রতিবেদন আপনার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। রেলের সহায়তায় সহজেই নিজের ব্যবসা খুলে বিপুল আয়ের পথ তৈরি করুন।

দেশের যুবসমাজের জন্য IRCTC নিজেদের পরিব্যাপ্তি বাড়িয়ে দিয়েছে। এখন থেকে আপনি রেলের টিকিট বুক করে ঘরে বসে প্রচুর টাকা আয় করতে পারবেন। তারজন্য শুধুমাত্র আপনাকে IRCTC-এর এজেন্ট হতে হবে। তবে রেলের তরফে এই এজেন্ট হওয়ার কিছু পদ্ধতি রয়েছে। এজন্য রেলের নিজস্ব ওয়েবসাইটে ভিসিট গিয়ে এজেন্ট হওয়ার জন্য নির্দিষ্ট ফর্ম পূরণ করতে হবে। IRCTC আপনার প্রদানকৃত সমস্ত তথ্য খুঁটিয়ে যাচাই করে দেখে আপনাকে তাদের এজেন্ট হওয়ার অনুমোদন দেবে। তারজন্য রেলকে সামান্য কিছু ফি দিতে হয়।

বর্তমান যুগে সমস্ত কিছুই অনলাইনের মাধ্যমে হচ্ছে। কেউ কেউ নিজেদের মোবাইল থেকে টিকিট বুক করে নিলেও ব্যাপারটা বেশ খটমট। সবাই সমস্ত পদ্ধতি সম্পর্কে অবগতও নয়। তাই বেশিরভাগ মানুষই IRCTC এর এজেন্টদের সাহায্য নেন। আর এখানেই রেল আপনাকে সেই সুযোগ কাজে লাগাতে দিচ্ছে। এজেন্ট হয়ে IRCTC এর টিকিট কেটে সহজেই টাকা কামাতে পারবেন।

অনলাইন প্রক্রিয়া সমপন্ন হওয়ার পর এক বছরের লাইসেন্স পাওয়ার জন্য রেলেকে ৩,৯৯৯ টাকা ফি দিতে হয়। আর দুই বছরের জন্য লাইসেন্স নিতে হলে ৬,৯৯৯ টাকা ফি দিতে হয়। ফি বাবদ দেওয়া অর্থ সহজেই উথে আসে। সাথে টিকিট বিক্রির সংখ্যার উপরে উপার্জন আরো বৃদ্ধি পাবে। এছাড়া প্রথম ১০০ টিকিট বুকিংয়ের জন্য টিকিট প্রতি ১০ টাকা রেলকে দিতে হয়।