নিউজবিনোদন

মধুচন্দ্রিমা করতে গিয়ে স্বামীর ওপর রেগে লাল পুনম পান্ডে, তোলপাড় নেট দুনিয়া

চলতি মাসেই দীর্ঘদিনের বন্ধু স্যাম বম্বে-র সাথে গাঁটছড়া বাঁধেন পুনম পান্ডে। কিন্তু মাস ঘুরতে না ঘুরতেই অশান্তি, এমনকি স্বামী শ্যাম বম্বের বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির অভিযোগ। বিয়ের ১৯ দিনের মাথায় স্বামীর বিরুদ্ধে পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের পুনমের।

পুনম পান্ডে এই নামটা শুনলেই অনেকের মুখে চওড়া হাসি ফোটে। নেটদুনিয়ায় হট সেনসেশনের তালিকায় সবার প্রথমেই উঠে আসে পুনমের নাম। সোশ্যাল মিডিয়ায় একের পর এক শরীরী আবেদন পূর্ণ ছবি দিয়ে লাইমলাইটের শীর্ষে থাকেন পুনম। হট ভিডিও পোস্ট করে পুরুষদের রাতের ঘুম ওড়াতে তার জুড়ি মেলা ভার। এইসবের মাঝেই পুনম পান্ডের হঠাৎ বিয়ের খবরে অবাক হয়ে গিয়েছিল সকলে।গর ১ সেপ্টেম্বর সাতপাকে বাঁধা পড়েছিলেন পুনাম পান্ডে ও তাঁর বন্ধু স্যাম। কিন্তু মাস ঘুরতে না ঘুরতেই কি হলো পুলিশের দারস্থ হতে হলো পুনমকে স্বামীর বিরুদ্ধে।

সূত্রের খবর, বিয়ের পরপরই স্বামী শ্যাম বম্বের সঙ্গে গোয়ায় হাজির হন তিনি। সম্প্রতি সেখানেই শ্যুটিং শুরু করেন পুনম পান্ডে। কিন্তু এরপরই পুনম অভিযোগ করেন, শ্যাম নাকি তাঁর শ্লীলতাহানি করেন। পুনমের অভিযোগ ভিত্তিতে তার স্বামীকে গ্রেফতার করে গোয়া পুলিশ। কেনো এই অভিযোগ সেই বিষয়ে মুখ খোলেনি পুনম পান্ডে বা শ্যাম বম্বে।

উল্লেখ্য, বিয়ের আগেই লকডাউনের নিয়ম অমান্য করায় গ্রেফতার হন তাঁরা। কোনও কারণ ছাড়াই বান্দ্রা থেকে মেরিন ড্রাইভ পর্যন্ত গাড়ি চালিয়ে যাচ্ছিলেন,তাঁদের কাছে পারমিটও ছিল না এই অভিযোগে তাদের গ্রেফতার হয়েছিল বলে খবর। আর এরই মাঝে জুলাই মাসে বাগদান পর্ব সেরে ফেলেন পুনম পান্ডে। লকডাউনের মধ্যেই আংটি বদল সেরে ফেলেন স্যাম বম্বের সঙ্গে। পুনম পান্ডে ও স্যাম বম্বে নিজেদের ইনস্টাগ্রাম হ্যান্ডেলে বিয়ের ছবি পোস্ট করেন। সম্প্রতি মেহন্দি অনুষ্ঠানেরও ছবি শেয়ার করেন স্যাম। সেই ছবিতে পুনমকে সবুজ রঙের লেহঙ্গায় দেখা যায়। অন্যদিকে, বিয়ের দিনের ছবিতে কালো রঙের জমকালো লেহঙ্গায় লক্ষ্য করা গিয়েছিল পুনমকে। গত ২ বছর ধরে লিভ ইন সম্পর্কে ছিলেন পুনম পান্ডে এবং শ্যাম বম্বে। তারপর বিয়ে সারলেন তাহলে তো তাদের আনন্দে থাকার কথা, তা না করে সোজা থানায় স্বামীর বিরুদ্ধে অভিযোগ পুনমের। কিন্তু কেনো উঠেছে প্রশ্ন।

Tags

Related Articles

Close