আন্তর্জাতিকনিউজ

পেঁয়াজের দাম আকাশছোঁয়া, ভারতের বিরুদ্ধে ক্ষোভে ফুঁসছে বাংলাদেশ

এইবছরও পেঁয়াজের দাম ইতিমধ্যেই ৮০ থেকে ১০০ টাকায় পৌঁছে গিয়েছে। আগামী কয়েকদিনে পেঁয়াজের দাম সেখানে আকাশছোঁয়া হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

ফের বাড়ছে পেঁয়াজের দাম। তবে এই দেশে নয়, বাংলাদেশে। গত বছর ২৯ সেপ্টেম্বর নাগাদ বাংলাদেশে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করেছিল ভারত। এবারও সেই সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। বাংলাদেশে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করা হয়েছে। যেদিন বাংলদেশ থেকে ভারতে ইলিশ এল, সেদিনই পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করা হয়েছে। ভারতের এই সিদ্ধান্তে দুই দেশের মধ্যে সম্পর্কে প্রভাব ফেলতে শুরু করেছে। আগের বছর পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ হওয়াতে বাংলাদেশে পেঁয়াজের দাম বহুগুন বেড়ে যায়।

এইবছরও পেঁয়াজের দাম ইতিমধ্যেই ৮০ থেকে ১০০ টাকায় পৌঁছে গিয়েছে। আগামী কয়েকদিনে পেঁয়াজের দাম সেখানে আকাশছোঁয়া হবে বলে মনে করা হচ্ছে। ভারত রপ্তানি করবে না জেনে বাংলাদেশ ইতিমধ্যে পেঁয়াজ মজুত করতে শুরু করেছে। তাছাড়া বাংলাদেশ সরকার জানিয়েছে, পাকিস্তান ও চিন তাঁদের পেঁয়াজ রপ্তানি করতে চেয়েছে। এতে বোঝাই যাচ্ছে যে পাকিস্তান ও চীন এই সময় সুযোগ নিচ্ছে যাতে ভারতের সাথে বাংলাদেশের সম্পর্কটা তিক্ত হয়।

অবশ্য ভারত রপ্তানি বন্ধ করে দেবার পরেই বাংলাদেশে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। বাংলাদেশী জনগণ ইতিমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ভারতের বিরুদ্ধে নিজেদের ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছেন। কেউ কেউ আবার বলছেন, ভারতে ইলিশ পাঠানোর কি দরকার ছিল, ভারত পরপর দুইবার পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করল। তাহলে ভালো করে সম্পর্ক বজায় রাখার কোনো প্রয়োজন নেই বলেও অনেক বাংলাদেশী নাগরিক মন্তব্য করেছেন।

প্রসঙ্গত, আগের বছর পেঁয়াজের দাম বাড়লে হাসিনার সরকারও দেশবাসীকে পরামর্শ দেয়, পেঁয়াজ ছাড়া রান্না করা শিখতে পারলে ভাল হবে। এইবছর সেরকম কিছুর আশঙ্কা করছেন বাংলাদেশবাদী।

Tags

Related Articles

Close