দেশনিউজ

মাত্র ৭৩ দিনের মধ্যে ভারতের বাজারে আসছে করোনার ভ্যাকসিন, দেশবাসীর জন্য বিনামূল্যে হবে টিকাকরণ

দেশের তৈরী প্রথম এই করোনা ভ্যাকসিন বাজারে আর ৭৩ দিনের মধ্যে পাওয়া যাবে বলে দাবি করেছেন প্রস্তুতকারীরা।

এবার সামনে এল ভারতের তৈরী প্রথম করোনা ভ্যাকসিন বাজারে আসার সম্ভাব্য সময়। পুনের বায়োটেক সংস্থা সেরাম ইনস্টিটিউট অব ইন্ডিয়া এই করোনা ভ্যাকসিন ‘কোভিসিল্ড’ তৈরী করেছে। দেশের তৈরী প্রথম এই করোনা ভ্যাকসিন বাজারে আর ৭৩ দিনের মধ্যে পাওয়া যাবে বলে দাবি করেছেন প্রস্তুতকারীরা। আর ভারত সরকার জাতীয় টিকাদান কর্মসূচি অনুযায়ী এই করোনা ভ্যাকসিন প্রতিটি ভারতীয়কে বিনামূল্যে দেওয়া হবে।

এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন অনুযায়ী, ভারতে অক্সফোর্ডের টিকা প্রস্তুতকারী সংস্থা সেরাম ইনস্টিটিউটের এক কর্তা দাবি করেছেন, সেরামের তৈরি করোনার প্রতিষেধক কোভিশিল্ডের ট্রায়ালের জন্য ভারত সরকারের কাছ থেকে বিশেষ লাইসেন্স পেয়ে গিয়েছে সংস্থাটি। এর ফলে মাত্র ৫৮ দিনের মধ্যে এই ভ্যাকসিনের পরীক্ষা শেষ হয়ে যাবে। আর ৭৩ দিনের মধ্যে এই ভ্যাকসিনটি বাজারে চলে আসবে। আর সোরার এ ভ্যাকসিন সাধারণ মানুষের জন্য চিনবে তাই সাধারণ মানুষে কোনো টাকা দিতে লাগবে না।

এই ‘ভ্যাকসিনটি’র প্রথম পর্যায়ের হিউম্যান ট্রায়াল সফল হয়েছে। এবার দ্বিতীয় ও তৃতীয় পর্যায়ের পরীক্ষার ফলের অপেক্ষা। শনিবার, ২২ আগস্ট ভারতের মাটিতে এর তৃতীয় পর্যায়ের প্রথম ডোজের ট্রায়াল শুরু হয়েছে। দেশের মোট ১৭টি কেন্দ্রে ১৬০০ মানুষের উপর এই ট্রায়াল শুরু হয়েছে। প্রতি কেন্দ্রে প্রায় ১০০ জন্যে এ করোনার ভ্যাকসিন দেবার চেষ্টা করা হচ্ছে। এদিকে, ভারত সরকার ইতিমধ্যেই ইঙ্গিত দিয়েছে, এই ভ্যাকসিন সেরামের কাছ থেকে সরাসরি সরকার কিনবে। সংস্থাটিকে আগামী বছর জুন পর্যন্ত মোট ৬৮ কোটি ভ্যাকসিন তৈরির লক্ষ্যমাত্রা দিয়েছে কেন্দ্র।

সেরাম ইনস্টিটিউট অক্সফোর্ড ও অ্যাস্ট্রজেনেকার সঙ্গে চুক্তি করে ভারতে অক্সফোর্ডের ফর্মুলায় ডিএনএ ভ্যাকসিন তৈরি করছে। ফলে ভারত সহ আর টি দেশে এই করোনার টিকা বিক্রি করতে সক্ষম হবে সেরাম ইনস্টিটিউট অব ইন্ডিয়া।

Tags

Related Articles

Close