দেশনিউজ

এবার ১৮ বছরের নীচে মোবাইল ফোন ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা, কড়া পদক্ষেপ নিলো প্রশাসন

সব বিষয়ের যেমন একটি ভালো দিক রয়েছে, ঠিক তেমনি রয়েছে একটি খারাপ দিক। এর একটি দৃষ্টান্ত হল মোবাইল ফোন। একাধারে মোবাইল ফোন আমাদের সারা দুনিয়াকে হাতের মুঠো এনে দিয়েছে, আমাদের চলাফেরা, জীবনযাত্রা অনেক সহজ হয়েছে মোবাইল ফোনের দৌলতে। তবে এত কিছু ভালো দিক থাকা সত্ত্বেও এই রয়েছে কিছু খারাপ দিক। এই মোবাইল ফোনে আসক্ত হয়ে পড়ছেন বহু মানুষ। সর্বোপরি বাচ্চারা এই মোবাইল ফোনের প্রতি আসক্ত হয়ে পড়ছে। আর তাই অভিভাবকদের কাছে এটি একটি চিন্তার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে।

আর বাচ্চাদের এই মোবাইল ফোনের প্রতি আসক্তি দূর করার জন্য মহারাষ্ট্রের একটি গ্রাম নিল এক কঠিন পদক্ষেপ। তারা ১৮ বছরের কম বয়সী বাচ্চাদের মোবাইল ফোন ব্যবহার নিষিদ্ধ করল। মহারাষ্ট্রের পশ্চিম বিদর্ভ অঞ্চলের ইয়াভাতমাল জেলার একটি গ্রামে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এই সিদ্ধান্ত নেওয়ার কারণ দেখানো হয়েছে যে বাচ্চারা গেম খেলা এবং সাফিং ওয়েবসাইটগুলি দেখার জন্য উপযুক্ত নয় কিন্তু মোবাইল ফোনের ফলে তারা এসবের প্রতি আকৃষ্ট হয়ে পড়ছে। মোবাইল ফোনের প্রতি তাদের আকর্ষণ কমানোর জন্যই এমন পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।

এই সিদ্ধান্তটি নেওয়া হয়েছে পুসাদ তহসিলের অধীনে বাঁশি গ্রামের গ্রামসভায়। বাঁশি গ্রাম পঞ্চায়েত সড়পঞ্চ গজানন টেলে বলেছেন, ১৮ বছরের কম বয়সী বাচ্চাদের মোবাইল ফোন ব্যবহারের নিষেধাজ্ঞা সর্বসম্মতভাবে অনুমোদিত হয়েছিল। এরফলে ১৮ বছরের কম বয়সী বাচ্চা এবং অভিভাবকদের কঠোরভাবে এই নিষেধাজ্ঞা মেনে চলার কথা বলেছেন তিনি।

এছাড়াও তিনি বলেছেন, এই নিষেধাজ্ঞা বাস্তবায়ন করতে সমস্যার সম্মুখীন হলেও তারা কাউন্সিলিংয়ের মাধ্যমে এই সমস্যা দূর করার চেষ্টা করবেন এবং এর সাথে সাথে এই নিষেধাজ্ঞা লঙ্ঘন করলে জরিমানা আরোপ করা হবে। তবে এখনো পর্যন্ত জরিমানার অংক নির্ধারণ করা হয়নি। তবে টেলের মতে নিষেধাজ্ঞা লঙ্ঘন করলে প্রাথমিকভাবে তাদের পরামর্শ দেওয়া হবে এবং তার পরেও যদি কেউ লংঘন করে তাহলে তাদের দিতে হবে জরিমানা।

Related Articles

Back to top button