আন্তর্জাতিকনিউজ

স্বেচ্ছাসেবকের শারীরিক অবস্থার অবনতি, বন্ধ রাখা হল অক্সফোর্ডের করোনা ভ্যাকসিনের চূড়ান্ত ট্রায়াল

একজন স্বেচ্ছাসেবকের শরীরে পার্শপ্রতিক্রিয়া দেখা যাওয়াতে বন্ধ করে দেওয়া হল অক্সফোর্ড- অ্যাস্ট্রোজেনেকার চূড়ান্ত পর্যায়ের ট্রায়াল।

সারা বিশ্বজুড়ে যে হারে করোনা সংক্রমণ বাড়ছে, সেখানে ভ্যাকসিনের খুব প্রয়োজন। তবে এবার এই ভ্যাকসিন তৈরির ক্ষেত্রে এল বড় ধাক্কা। একজন স্বেচ্ছাসেবকের শরীরে পার্শপ্রতিক্রিয়া দেখা যাওয়াতে বন্ধ করে দেওয়া হল অক্সফোর্ড- অ্যাস্ট্রোজেনেকার চূড়ান্ত পর্যায়ের ট্রায়াল। এখন আর ট্রায়াল শুরু হবে না বলেই জানা গেছে। যতক্ষণ না পর্যন্ত এই অসুস্থতার কারণ জানা যাচ্ছে, ততদিন ট্রায়াল স্থগিত রাখবে সংস্থা।

মঙ্গলবার রাতে অ্যাস্ট্রোজেনেকার তরফ থেকে জানানো হয়েছে, একজন স্বেচ্ছাসেবক অপ্রত্যাশিত ভাবেই অসুস্থ হয়ে যাওয়ায় তাঁদের তৈরি করোনার টিকার চূড়ান্ত পর্যায়ের ট্রায়াল সাময়িকভাবে বন্ধ করা হচ্ছে। যদিও সংস্থা দাবি করেছে যে শুধুমাত্র একজনের শরীরেই এরকম বিরূপ প্রতিক্রিয়া হয়েছে কি করে, তা তারা খতিয়ে দেখবেন। জানা গিয়েছে, ওই স্বেচ্ছাসেবক ভ্যাকসিন নেবার পরেই খুব জ্বর হয়েছিল। আর তাই এই ঘটনার পরেই পুরোপুরি বন্ধ করা হয়েছে ট্রায়াল।

সংস্থার পক্ষ থেকে এটাও জানানো হয়েছে, এটি একটি রুটিন প্রক্রিয়া। যে কোনো একজনের শরীরেও যদি কোন পার্শপ্রতিক্রিয়া দেখা যায়, তাহলে ট্রায়াল বন্ধ করে দেওয়া উচিত। এরপর রিভিউ কমিটি পুনরায় ভ্যাকসিনটির ক্ষতিকর প্রভাব আছে কিনা তা খতিয়ে দেখবে। এই রিভিউ কমিটি ছাড়পত্র দিলেই আবার ট্রায়াল শুরু হবে। প্রসঙ্গত, অক্সফোর্ডের এই ভ্যাকসিনই করোনা প্রতিরোধে সবচেয়ে নিরাপদ এবং উপযোগী বলে মনে করা হচ্ছিল। তবে এই ধাক্কার পর সাময়িক স্থগিত রাখা হবে এই চূড়ান্ত পর্যায়ের ট্রায়াল।

Tags

Related Articles

Close