আন্তর্জাতিকনিউজ

পাকিস্তানে ফের হিন্দুদের উপর অনাচার, হিন্দু নাবালিকাকে অপহরণের পর ধর্মান্তরিত করে বিয়ে যুবকের

এবার ১৪ বছরের একটি কিশোরীকে অপহরণ করে তারপর জোর করে ধর্মান্তকরণ করিয়ে বিয়ে করল এক মুসলিম যুবক।

ফের সংখ্যালঘু গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে অনাচারের অভিযোগ উঠল। এবার ১৪ বছরের একটি কিশোরীকে অপহরণ করে তারপর জোর করে ধর্মান্তকরণ করিয়ে বিয়ে করল এক মুসলিম যুবক। মেয়েটির পরিবারের তরফ থেকে স্থানীয় থানায় এফআইআর দায়ের করা হলেও কোনও ব্যবস্থা নেয়নি প্রশাসন। আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই কিশোরীর নাম পরশা কুমারী। বয়স ১৪ বছর। সে পাকিস্তানের সিন্ধু প্রদেশের মোরি জেলার খারিরপুর বাসিন্দা।

ওই কিশোরী ক্লাস নাইনে পড়ে। ওই কিশোরীকে অপহরণ করে আবদুল সাবুর নামে ওই এলাকার এক মুসলিম যুবক অপহরণ করে। তারপর জোর করে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করিয়ে বিয়ে করে। এই খবর পাবার পর মেয়েটির পরিবারের সদস্যরা তার জন্মের শংসাপত্র নিয়ে পুলিশের কাছে এফআইআর দায়ের করলেও কোনও ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি প্রশাসন। এটাই জানা গিয়েছে, আবদুল সাবুর নামে ওই অপহরণকারী যুবক স্থানীয় আদালতে ওই কিশোরীর নাম একটি মিথ্যে হলফনামা জমা দিয়েছে।

ওই হলফনামাতে কিশোরীর বয়স ১৮ রয়েছে, আর স্বেচ্ছায় বিয়ে করা হয়েছে বলে জানানো হয়েছে। তবে মেয়েটির পরিবারের কাছে থাকা কাগজ অনুযায়ী, ২০০৫ সালে ১৫ সেপ্টেম্বর জন্ম হয়েছে ওই কিশোরীর। সেক্ষেত্রে কিশোরীর এখন বয়স ১৪ বছর।

Tags

Related Articles

Close