আন্তর্জাতিকনিউজ

চীনের সাথে বন্ধুত্বের মাশুল! নেপালের জমি গ্রাস করে বিল্ডিং বানাল চীন

৩০ আগস্ট থেকে ৯ সেপ্টেম্বরের মধ্যে আন্তর্জাতিক সীমান্ত পেরিয়ে নেপালের এক কিলোমিটারের মধ্যে ঢুকে ৯টি বিল্ডিং তৈরি করে ফেলেছে চীন।

এবার চীনের সাথে বন্ধুত্বের মাশুল গুনতে হবে নেপালকে। চীন নিজেদের ফন্দি চালানো শুরু করে দিয়েছে নেপালে। এবার নেপালকে তিব্বত বানানোর সবরকম চেষ্টা চালাচ্ছে ড্রাগনের দেশ। নেপালের জমি অবৈধভাবে দখল করে নির্মাণের কাজ শুরু করেছে চীন। আর এদিকে নেপালের সরকার ভারতের বিরুদ্ধে বিভিন্ন পদক্ষেপ নিচ্ছে তাও আবার বেজিংয়ের উস্কানিতে। সম্প্রতি নেপালের সংবাদমাধ্যমে এই ঘটনার কথা প্রকাশ্যে আসতেই নেপালের ওলি প্রশাসনের উপরে ক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছেন সাধারণ মানুষ।

নেপালের সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী, কয়েকদিন ধরেই হুমলা অঞ্চলের লাপচা-লিমি এলাকায় চীন বেআইনিভাবে বিল্ডিং তৈরি করছে বলে অভিযোগ জানাচ্ছিলেন স্থানীয় বাসিন্দারা। এই অভিযোগের উপর ভিত্তি করেই হুমলা জেলার সহকারী জেলা আধিকারিক দলবাহাদুর হামাল ওই এলাকা পরিদর্শন করতে যান। এরপরেই জানা যায়, ৩০ আগস্ট থেকে ৯ সেপ্টেম্বরের মধ্যে আন্তর্জাতিক সীমান্ত পেরিয়ে নেপালের এক কিলোমিটারের মধ্যে ঢুকে ৯টি বিল্ডিং তৈরি করে ফেলেছে চীন।

প্রসঙ্গত, এর আগেও জুন মাসে নেপালের ভূমি ও কৃষি মন্ত্রক থেকে প্রকাশিত রিপোর্ট অনুযায়ী জানা যায়, ডোলাখা, গোর্খা, দারচুলা, হুমলা, সিন্ধুপালচক, সঙ্খুওয়াভা ও রাসুয়া জেলার বেশ কয়েকটি গ্রাম ও ফাঁকা এলাকায় আধিপত্য বিস্তার করা শুরু করে দিয়েছে চীন। এছাড়া করল্যাং এলাকার একদম শীর্ষে ৫৭ নম্বর সীমান্ত পিলারটিকে অনেক ভিতরে এনে পুঁতে দিয়েছে চীন। এই ঘটনাগুলি প্রধানমন্ত্রী ওলিকে জানানো হলেও তিনি কোনো উচ্চবাক্য করেননি।

Tags

Related Articles

Close