আন্তর্জাতিকনিউজ

পৃথিবীর বুকে আছড়ে পড়বে বিশাল বড় ‘অ্যাপোফিস’! ভয়ানক বিপদের পূর্বাভাস দিলো বিজ্ঞানমহল

অসম্ভব দ্রুতগতিতে পৃথিবীর দিকে ছুটে আসছে গ্রহাণু আপাতত তার যা গতিপথ তাতে পৃথিবীর উপর তাঁর আছড়ে পড়ার সম্ভাবনা উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। না কোনো কল্পবিজ্ঞান কাহিনী বা গুজব নয়। সত্যি সত্যিই পৃথিবীর বুকে এবার আছড়ে পড়তে চলেছে গ্রহাণু, খোদ এই বিষয় সর্ম্পকে অবগত করেছে বিজ্ঞানীরা।

ইউনিভার্সিটি অফ হাওয়াই ইনস্টিটিউট ফর অ্যাস্ট্রোনমি বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন অ্যাপোফিস নামক এই গ্রহাণু নিচের গতি বাড়িয়ে ধেয়ে আসছে যারফলে ২০৬৮ সালে ধাক্কা লাগবে পৃথিবীর সাথে।

জানা যাচ্ছে ২০০৪ সালে প্রথমবার এই গ্রহাণুটি পরিলক্ষিত হয়। এরপর থেকেই দীর্ঘ এতবছর ধরে গ্রহাণুটির গতি প্রকৃতির ওপর লক্ষ রেখে চলেছেন ইউনিভার্সিটি অফ হাওয়াই ইনস্টিটিউট ফর অ্যাস্ট্রোনমি বিজ্ঞানীরা। অবশেষে দীর্ঘ পর্যবেক্ষণের পরে ডেভ থোলেন জানিয়েছেন ২০৬৩ সালেরও আগে ২০২৯ এর ১৩ এপ্রিল এই গ্রহাণু পৃথিবীর খুব কাছ দিয়ে যাবে। আপোফিস এতটাই কাছে কাছে চলে আসবে যে খালি চোখে দেখা যাবে বলে দাবি করছেন তিনি। যদিও সেই সময় পৃথিবীর সাথে সংঘর্ষ হবার কোন সম্ভাবনা নেই।

কিন্তু ২০৬৩ সালে কি হতে চলেছে তা নিয়ে বেশ শঙ্কিত বিজ্ঞানমহল। কারণ ৮ কোটি ৮০ লক্ষ টন টিএনটি বিস্ফোরণের যে শক্তি নির্গত হয় এই গ্রহাণুর ধাক্কায় তেমনি শক্তি উৎপন্ন হবে বলে ধারনা করছেন বিজ্ঞানীরা। আর তাই যদি পৃথিবীর সাথে সংঘর্ষ ঘটে তাহলে ধ্বংসের পরিমান হিরোশিমায় ফেলা পরমাণু বোমার ধ্বংস ক্ষমতার চেয়ে ৬৫ হাজার গুণ বেশি হবে।

Tags

Related Articles

Close