নিউজরাজ্য

বাংলাই মডেল, ক্ষমতায় এলেই দেশজুড়ে ফ্রি-তে রেশন, মানুষের মনে আশা জাগালেন মমতা

বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এর সামনে এখন পাখির চোখ ২০২৪ এর দিল্লি দখলের লড়াই। বিজেপিকে মসনদ থেকে হঠাতে বদ্ধপরিকর মমতা। আর সেই কারণে এখন থেকেই জোর কদমে লড়াইয়ে নামতে চান তৃণমূল সুপ্রিমো। একুশের মঞ্চ থেকে সমস্ত বিজেপি বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলোর উদ্দেশ্যে সকলকে একজোট হওয়ার বার্তা দিলেন মমতা। মমতা বললেন, ‘সবাইকে একজোট হয়ে লড়তে হবে।’

২০১৯ এর মত যাতে আবার মুখ থুবরে না পড়তে হয় তাই এখন থেকেই শক্তিশালী ফ্রন্ট তৈরি করার জন্য বিজেপি বিরোধী দলগুলোকে আবাহন জানালেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পাশাপাশি একুশের মঞ্চ থেকে দেশবাসীর উদ্দেশ্যে বাংলার মুখ্যমন্ত্রীর বার্তা, ২০২৪ সালে ফ্রন্ট ক্ষমতায় এলে, দেশজুড়ে বিনামূল্যের রেশন দেওয়া হবে। মিলবে নিখরচায় চিকিৎসার পরিষেবা।’একুশের মঞ্চে দাঁড়িয়ে তৃণমূল সুপ্রিমোর এই ঘোষণাকে বেশ তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছেন রাজনৈতিক মহল।

এদিন বিজেপি বিরোধী ফ্রন্ট গড়ে তোলার ডাক দেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বিজেপি বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলিকে মমতার বার্তা, ‘তিন বছরও বাকি নেই। এখন থেকেই জোট বেঁধে কাজ করতে হবে। ভয় না পেয়ে একসাথে জোট বেঁধে লড়াই করতে হবে। মোদি বিরোধী দলগুলোকে ফ্রন্টে আসার আহ্বান জানিয়ে মুখ্যমন্ত্রী দেশবাসীর উদ্দেশ্যে ফ্রন্টের গুরুত্ব তুলে ধরলেন। বললেন, ‘ফ্রন্ট ক্ষমতায় এলে সকলকে বিনামূল্যে রেশন ও চিকিৎসা দেওয়া হবে।’

রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা এই দিন একুশের মঞ্চে দাঁড়িয়ে মমতার ভাষণকে বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছে, কারণ একসময়
২০১৪ সালে গুজরাটের উন্নয়ন তুলে ধরেছিলেন সে রাজ্যের তৎকালীন মুখ্যমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। দেশ জুড়ে নরেন্দ্র মোদীর ‘গুজরাট মডেলে’র প্রচার চলেছিল। আর এবার ২০২৪ সালের আগে ‘বাংলা মডেল’ সামনে আনলেন মমতা (Mamata Banerjee)। তৃণমূল সরকারের প্রকল্পগুলি তুলে ধরে এ দিন তিনি দাবি করেন, গুজরাট নয় বাংলাই মডেল।

Tags

Related Articles

Close