দেশনিউজবিনোদন

সোনু সুদের নামে চালু অ্যাম্বুলেন্স, বিনামূল্যে মিলবে পরিষেবা

সোনু সুদ, লকডাউন পরিস্থিতিতে কঠিন সময়ে যাকে ‘গরিবের মসিহা’ বলে সবাই মেনে নিয়েছে। পরিযায়ী শ্রমিকদের ঘরে ফেরানো হোক বা বিনামূল্যে কারো চিকিৎসা বা অপারেশনের ব্যবস্থা করা হোক, সবেতেই দেখা মেলে এই অভিনেতার। তিনি মানুষের উপকার করতে পেরে ঈশ্বরের কাছে কৃতজ্ঞ। তাঁকে মানুষের কাজে লাগার সামর্থ্য যে ঈশ্বর দিয়েছেন, তার জন্য তিনি ধন্যবাদ জানান ঈশ্বরকে। মানুষ এহেন সোনু সুদকে মসিহার আসনে বসাবে না তো কাকে বসাবে?

এই সোনু সুদকে দেখে অনুপ্রাণিত হয়েছেন অনেক মানুষ এবং তাঁরাও মানুষের উপকার করার কাজে ব্রতী হয়েছেন। তেমনই একজন হায়দ্রাবাদের শিবা। নিজে সাঁতারু হওয়ার সুবাদে অনেক জলে ডুবে আত্মহত্যা করতে যাওয়া মানুষকে মৃত্যুর মুখ থেকে বাঁচিয়েছে শিবা। হুসেন সাগর ঝিলে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করতে চায় বহু মানুষ এবং শিবা তাদেরকে বাঁচিয়েছেন।

তাঁর এই উদ্যোগ দেখে অনেকেই শিবাকে অনুদান দিতে থাকেন এবং সেই অনুদানের মাধ্যমে মানুষের প্রাণ বাঁচানোর জন্য একটি অ্যাম্বুলেন্স পরিষেবা চালু করেন তিনি। তার নাম‌ও দেন মসিহার নামে, সোনু সুদ অ্যাম্বুলেন্স পরিষেবা।

সোনু নিজে জানান, এই পরিষেবা উদ্বোধন করতে পেরে তিনি তাঁর কাছে কৃতজ্ঞ। শিবার মত মানুষ এই সমাজের গর্ব, তাঁর মত মানুষ সমাজে আরো বেশি করে দরকার মানুষের উপকার করার জন্য। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, তেলেঙ্গানার সিদ্দিপেট জেলার ডাব্বা টান্ডা গ্রামে সোনুর মন্দির তৈরি হয়েছে। সেই মন্দিরে তাঁর একটি মূর্তি রয়েছে। গ্রামবাসীরা তাকে রীতিমত দেবতার আসনে বসিয়েছেন এবং পুজো করেন নিয়মিত। যদিও ওই খবর শুনে সোনু বলেছেন, “আমি এত সম্মানের যোগ্য সত্যি কিনা জানি না, তবে আমি আপ্লুত সবারই ভালোবাসায়।” মূর্তি তৈরি করেছেন যিনি, সেই শিল্পী মধুসূদন পাল সোনু সুদের একটি ছোট মূর্তিও তৈরি করেছেন, তাঁকে উপহার দেবেন বলে।

Tags

Related Articles

Close