অফবিটনিউজ

এক রাতে ৫ কোটি টাকা পাওয়ায় অভিশাপ, সাজানো জীবন তছনছ ভারতীয় যুবকের

টাকা যেমন যশ প্রতিপত্তি খ্যাতি এনে দেয় তেমনি সবকিছু কেড়েও নিতে পারে। টাকার সাথে যদি জীবনে পরিকল্পনা বা লক্ষ্য জুড়ে না থাকে তাহলে সেই টাকা মানুষের পতন আটকাতে পারে না। হ্যা এমনই এক ব্যক্তির কথা বলবো যিনি কোটি টাকার মালিক হয়েও নিঃস্ব হয়ে পড়েছিলেন।

ভারতীয় টেলিভিশনের পর্দার অন্যতম হিট গেম শো অমিতাভ বচ্চন পরিচালিত কোন বানেগা ক্রোড়পতি প্রায় প্রত্যেক বছর দেশের নানা প্রান্ত থেকে আমজনতা এসে এই শোয়ে নিজেদের ভাগ্য বদলান। কেবিসির ইতিহাসে এমনই এক চর্চিত বিজেতা বিহারের সুশীল কুমার। যিনি 2011 সালে পঞ্চম সিজনে 5 কোটি টাকা জিতেছিলেন।

কিন্তু সেই টাকা পাওয়ার পর তার জীবনে আরো কঠিন সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়। তিনি জানিয়েছেন ২০১৫ থেকে ২০১৭ তার জীবনের সবচেয়ে চ্যালেঞ্জিং সময় ছিল। কেবিসি জিতে যাওয়ায় স্থানীয় সেলিব্রেটি হয়ে গিয়েছিলেন তিনি। যার ফলে নিজের পড়াশোনা শেষ করতে পারেননি। বিহারে প্রত্যেক মাসে তার 10 থেকে 15 টি অনুষ্ঠান থাকতো।

এরপর সেই টাকা দিয়ে তিনি প্রথমে ব্যবসা শুরু করেন কিন্তু সেখানে বিশাল ক্ষতির মুখে পড়তে হয়। তারপর তিনি দিল্লি যান। দিল্লিতে গিয়ে তার এক বন্ধুর সাথে ক্যাব চালাতে আরম্ভ করেন। কিন্তু দিল্লিতে কয়েকজন শিল্পী ও জেএনইউ আইআইএমসি ছাত্রদের সাথে পরিচয় হওয়ার পর তার ধারণা হয় এর বাইরেও অন্য জগত আছে। বিপুল অর্থের নেশায় বুদ হয়ে নেশায় আসক্ত হয়ে পড়েন তিনি। এমনকি নিজের স্ত্রীর সাথে সম্পর্কে চিড় ধরে যায়। তার স্ত্রী তার কাছে ডিভোর্সের দাবি করেন। পরবর্তীতে তিনি দিল্লি ছেড়ে মুম্বাইয়ের আসেন তার লাক ফেভার করে কিনা দেখতে কিন্তু সেখানেও তিনি হতাশ হন।

শেষ পর্যন্ত বহু ভুলের পর যখন তার সাজানো জীবন তছনছ হয়ে যায় তখন তিনি উপলব্ধি করেন যে তিনি ঠিক পথে চলেননি। এরপর তিনি মুম্বাইয়ের পরিচালক হওয়ার ইচ্ছে ত্যাগ করে বিহারের গ্রামে ফিরে আসে যেখানে তিনি একসময় শিক্ষকতা ও পরিবেশ বাঁচানোর কাজে অংশ নিয়েছিলেন। বর্তমানে তিনি নিজের ভুলগুলো শুধরে নিয়ে আবার ভালো আছেন।

Tags

Related Articles

Close