নিউজরাজ্য

‘লরির চাকা থেকেও করোনা ছড়াতে পারে,’ আজব দাবি মুখ্যমন্ত্রীর

তিনি এদিন ফের সকলকে মাস্ক পড়ার জন্য বলেছেন। ঝাড়গ্রামে যে প্রচুর মানুষ মাস্ক পড়ছেন না, সেটাও মুখ্যমন্ত্রীর নজরে পড়েছে।

রাজ্যের করোনা পরিস্থিতি যথেষ্ট উদ্বেগ বাড়াচ্ছে। ক্রমেই উর্দ্ধমুখী হচ্ছে বেশ কয়েকটি জেলার করোনা গ্রাফ। ঝাড়গ্রামেও আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। এদিন ঝাড়গ্রামে প্রশাসনিক বৈঠকে উদ্বেগ প্রকাশ করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বুধবারের প্রশাসনিক বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “ঝাড়গ্রামে চেন্নাই, মুম্বই থেকে লরি আসে। তাই অক্টোবর মাসটা সাবধানে থাকতে হবে। বাজারের থলে থেকে যদি করোনা ভাইরাস ছড়াতে পারে, তাহলে লরির চাকা থেকেই বা ভাইরাস ছড়াতে পারবে না কেন?”

এছাড়া তিনি এদিন ফের সকলকে মাস্ক পড়ার জন্য বলেছেন। ঝাড়গ্রামে যে প্রচুর মানুষ মাস্ক পড়ছেন না, সেটাও মুখ্যমন্ত্রীর নজরে পড়েছে। যারা মাস্ক পড়ছেন না, তাদের জন্য পুলিশকে মানবিকভাবে সচেতনতা করার নির্দেশ দিয়েছেন। আর যাদের মাস্ক কেনার টাকা নেই, তাদেরকে মাস্ক বিলি করার জন্য প্রশাসনকে নির্দেশ দিতে বলা হয়েছে। যতদিন না ভ্যাকসিন আসছে, ততদিন প্রত্যেককেই মাস্ক পড়ার অভ্যাস করতে হবে।

ঝাড়গ্রামের এদিনের বৈঠক চলাকালীন করোনা ভাইরাসকে তিনি বায়ুবাহিত বলেও দাবি করলেন। করোনা মোকাবিলায় প্রত্যেককে কঠোরভাবে করোনা বিধিনিষেধ মানতে হবে। নাহলে করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণ করা যাবে না। ফের আরেকবার এই বার্তা তুলে ধরলেন মুখ্যমন্ত্রী। এছাড়া কালীঘাটে তাঁর নিজের পাড়ায় করোনা সংক্রমণের প্রসঙ্গকেও এদিন বৈঠকে তুলে ধরেছেন তিনি। মুখ্যমন্ত্রী বলেন যে তাকে যে চা করে দিয়েছে, সেও এখন করোনার সাথে লড়ছে। তাই সকলকেই সাবধান থাকার বার্তা দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

Tags

Related Articles

Close