×

বিদ্যুতের বিলে সাশ্রয়, গ্রাহকদের জন্য বড়সড় ছাড়ের ঘোষণা WBSEDCL-এর

অবিশ্বাস্য হারে কমছে বিদ্যুৎ বিল। আজই দেখে নিন কিভাবে কম করবেন। বর্তমানে বিদ্যুতের দাম আকাশB ছুয়েছে।L রাজ্যের মধ্যবিত্ত, নিম্ন মধ্যবিত্ত এবং নিম্নবিত্ত পরিবারগুলি বিদ্যুতের বিলের খরচ মেটাতে গিয়ে রীতিমতো হিমশিম খাচ্ছে। বিদ্যুতের বিলের খরচ বেড়ে যাওয়ার কারণে এখন সকলের পকেটে বেশ টান পড়ছে। তবে এই পরিস্থিতি গ্রাহকগণ একটু স্বস্তির আশ্বাস শোনালো পশ্চিমবঙ্গের অন্যতম ইলেক্ট্রিসিটি সরবরাহকারী সংস্থা ওয়েস্ট বেঙ্গল স্টেট ইলেকট্রিসিটি ডিস্ট্রিবিউশন কর্পোরেশন লিমিটেড বা WBSEDCL। WBSEDCL জানাচ্ছে, তারা বিদ্যুতের বিলের উপরে বাড়তি ছাড় আনতে চলেছে।

বিদ্যুতের গ্রাহকদের একটা নির্দিষ্ট পদ্ধতি মেনে চলতে হবে। তবেই বিদ্যুতের বিলের উপর এই ছাড় মিলবে। সেই পদ্ধতি মেনে চললে বিলের উপরে সর্বাধিক এক শতাংশ ছাড় পাওয়া যাবে। WBSEDCL- এর তরফ থেকে দেওয়া এক নির্দেশিকায় জানানো হয়েছে, গ্রাহকরা যদি সহায়তা কেন্দ্র বা কিয়স্ক ই-পেমেন্টের মাধ্যমে তাদের ইলেকট্রিক বিল পেমেন্টে করেন, তাহলে গ্রাহকরা অতিরিক্ত এই ছাড় পেয়ে যাবেন। মূলত স্মার্টফোন এসে যাওয়ার পর এবং সাথে নানা রকম পেমেন্ট এপ্লিকেশন গুলি চলে আসায় মানুষ ডিজিটালি পেমেন্টের দিকে বেশি ঝুঁকছে।

তাই মনে করা হচ্ছে যে, রাজ্যজুড়ে সংস্থার যে সমস্ত সহায়তা কেন্দ্রগুলি রয়েছে সেগুলির জনপ্রিয়তা বাড়ানোর জন্যই এই উদ্যোগ নিয়েছে WBSEDCL। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে একাধিক প্রশাসনিক বৈঠকে এই সমস্ত সহায়তা কেন্দ্রকে মানুষের আরো কাছে পৌঁছে যাওয়ার নির্দেশ দিতে দেখা গিয়েছিল।

বিদ্যুতের বিলের উপর যদি এক শতাংশও ছাড় পাওয়া যায় তাহলেও স্বাভাবিকভাবেই বিদ্যুতের খরচ কিছুটা কমে যাবে। যে পরিবারে প্রতি মাসে বিদ্যুতের বিল আসে ১০০০ টাকা, সেখানে গ্রাহক যদি এখন থেকে সহায়তা কেন্দ্রে গিয়ে পেমেন্ট করে সেক্ষেত্রে এক শতাংশ অর্থাৎ ১০ টাকা ছাড় পাবেন। অর্থাৎ সেক্ষেত্রে গ্রাহককে বিদ্যুতের বিল দিতে হবে ৯৯০ টাকা। তার সাথেই যে সমস্ত গ্রাহকরা ওয়েবসাইটের মাধ্যমে এই বিল জমা দেন তাদের ক্ষেত্রেও এই ছাড় দিয়ে থাকে WBSEDCL।