আন্তর্জাতিকনিউজ

পৃথিবীর দিকে ধেয়ে আসছে ৩ টি দৈত্যাকার গ্রহাণু, আয়তনে কুতুব মিনারের প্রায় দ্বিগুণ!

ন্যাশনাল এরোনটিকস অ্যান্ড স্পেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন ওরফে নাসা এই তথ্য সামনে নিয়ে এসেছে।

ফের পৃথিবীর দিকে ধেয়ে আসছে বিরাট আকারের গ্রহাণু। তবে একটা নয়, তিন-তিনটে গ্রহাণু এগিয়ে আসছে পৃথিবীর দিকে। নভেম্বর মাসের ১৪ এং ১৫ তারিখে অর্থাৎ আজ ও আগামীকাল এই মহাজাগতিক বিস্ময়ের সাক্ষী থাকবে পৃথিবী। ন্যাশনাল এরোনটিকস অ্যান্ড স্পেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন ওরফে নাসা এই তথ্য সামনে নিয়ে এসেছে। সেন্টার ফর নিয়ার আর্থ অবজেক্ট স্টাডিজও এই তথ্যতে সিলমোহর দিয়েছে।

জানা গিয়েছে, ১৪ নভেম্বর দুটি গ্রহাণু পৃথিবীর দিকে ধেয়ে আসবে। এই দুই গ্রহাণুর নাম রেখেছে ২০২০ টিবি৯ এবং ২০২০ এসটি১। ২০২০ টিবি৯ আয়তনে ৩০ মিটারের কাছাকাছি। অর্থাৎ আয়তনের দিক থেকে এটা একটা বিমানের সমান। নাসা জানিয়েছে। এর গতিবেগ প্রতি ঘণ্টায় ২৩ হাজার ৬০০ কিলোমিটার। পৃথিবীর পাশ দিয়ে ৫ মিলিয়ন কিলোমিটার দূরত্ব রেখে এটি বেরিয়ে যাবে।

২০২০ এসটি১ গ্রহাণুর আয়তন অনেকটাই বড়, প্রায় ১৭৫ মিটার। এটি কুতুবিনারের থেকেও বড়। কুতুব মিনার দৈর্ঘ্যে ৭৩ মিটার, অতএব এটি আয়তনে কুতুবমিনারের থেকে দুইগুণ বেশি। এর গতিবেগ প্রতি ঘণ্টায় ৩০ হাজার কিলোমিটার। এটিও পৃথিবীর পাশ দিয়ে ৭.৩ মিলিয়ন কিলোমিটার দূরত্ব রেখে বেরিয়ে যাবে। ১৪ নভেম্বর এই দুটি গ্রহাণু বেরিয়ে যাবার পর ১৫ নভেম্বর ২০১৯ ভিএল৫ নামে আরও একটি গ্রহাণু পৃথিবীর গা ঘেঁষে বেরিয়ে যাবে।

এই গ্রহাণু প্রসঙ্গে জ্যোতির্বিদরা জানিয়েছেন যে পৃথিবী এবং চাঁদের মাঝে যে দূরত্ব রয়েছে তার থেকে নয় গুণ বেশি দূরত্বে পৃথিবী ঘেঁষে এই গ্রহাণু বেরিয়ে যাবে। এছাড়া বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, খালি চোখেও দেখা যাবে না এই গ্রহাণুদের, কেবল শক্তিশালী টেলিস্কোপেই তা ধরা পড়বে।

Tags

Related Articles

Close