দেশনিউজ

বড় ভুল করছে সরকার, প্রাণ হারাবে বহু মানুষ! বিস্ফোরক কমল হাসান

তৃতীয় দফার লকডাউনে অনেক কিছুর ক্ষেত্রে ছাড় দিয়েছে কেন্দ্র সরকার। এই ছাড়ের মধ্যে মদের দোকান খোলার ক্ষেত্রে অনুমতি দেওয়া হয়েছে সরকারের পক্ষ থেকে। সরকারের এই সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ মাক্কাল নিধি মাইয়াম দলের প্রতিষ্ঠাতা তথা দক্ষিণী সুপারস্টার কমল হাসান। মোদি সরকারের ছাড়পত্র দেওয়াতে তামিলনাড়ু সরকারও আগামী ৭ মে থেকে মদের দোকান খোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তামিলনাড়ু প্রশাসনের এই সায় দেওয়াকেই ভয়ঙ্কর বিপদ ‌বলে মনে করছেন কমাল হাসান।

কমল হাসান তার একটি বিবৃতিতে বলেছেন ‘সরকারের এই একটা ছোট্ট ভুলও বহু মানুষের প্রাণ কেড়ে নিতে পারে’।কমল হাসান আরো বলেন, “কোয়েম্বেড়ু মার্কেট, যার মাধ্যমে তামিলনাড়ুতে তীব্র হারে করোনা সংক্রমণ ছড়িয়েছে, সরকার যার মোকাবিলা করতে অক্ষম, তারাই এখন আবার বাজারে মদের দোকান খুলতে চলেছে!” কমল হাসান তামিলনাড়ু স্টেট মার্কেটিং কোর্পোরেশনের এই সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করে আরো বলেন যে, “এআইএডিএমকে সরকার বুঝতে পারছে না যে তাদের ছোট্ট একটা ভুল সিদ্ধান্ত বহু মানুষের প্রাণ কেড়ে নিতে পারে!” সরকারি নির্দেশে গত সোমবার থেকে মদের দোকান খুলেছে দেশের গ্রীন ও অরেঞ্জ জোনে। দোকান খোলার মাত্র ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই কর্ণাটক সরকার আয় করেছে ৪৫ কোটি টাকা। বাকি রাজ্যের আয়ও এর ধারেকাছে। দোকান খোলার খবর শুনে দোকান খোলার আগেই দোকানের সামনে লম্বা লাইন পড়েছে সূরা প্রেমীদের। চড়া দামে মত কিনে বাড়ি ফিরছে সকলে। বাংলার অবস্থাও একই।

সোশ্যাল মিডিয়ার বিভিন্ন মদের দোকানের লম্বা লাইনের ছবি ভাইরালও হয়েছে। লকডাউন জারি হওয়ায় অন্যান্য দোকানের পাশাপাশি বড় তালা পড়েছিল মদের দোকানেও। ওতে ঘুম উড়ে গিয়েছিল সূরা প্রেমীদের। দীর্ঘ ৪০ দিন পর মদের দোকান খোলায় মুখে হাসি ফুটেছে তাদের। কনটেনমেন্ট জোন বাদে প্রায় সর্বত্রই শর্তসাপেক্ষে খোলা হয়েছে মদের দোকান। কেন্দ্র নির্দেশ দিলেও সবটাই নির্ভর করেছে রাজ্যের অনুমতির উপর। তামিলনাড়ু ক্ষেত্রের নির্দেশে সায় দিতেই ক্ষুব্ধ কমল হাসান।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Close