লাইফস্টাইল

গর্ভাবস্থার যে ৭ লক্ষণ দেখে সহজেই বুঝতে পারবেন ছেলে হবে না মেয়ে, জেনে নিন

আমাদের দেশে গর্ভস্থ ভ্রূণ ছেলে নাকি মেয়ে জানা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ হলেও হবু মায়েদের ক্ষেত্রে এই জানার ইচ্ছা যেন এক আনন্দ মিশ্রিত অনুভূতি। ন’মাস ধরে তিলে তিলে একটি প্রাণ কে নিজের শরীরের মধ্যে বেড়ে উঠতে দেখা, সে যেন এক অনন্য অনুভূতি। ভয়-উৎকন্ঠা-আনন্দ মিশ্রিত এই বিশেষ সময় প্রত্যেক নারীর জীবনেই ভীষণ প্রিসিআস। আপনি কি জানেন মা-দিদিমাদের দেওয়া কিছু ছোট ছোট টোটকা লক্ষ্য করলেই আপনি বিলক্ষণ বুঝতে পারবেন আপনার গর্ভের সন্তান পুত্র না কন্যা! আসুন জেনে নেওয়া যাক-

আপনার গর্ভে যদি কন্যা সন্তান থাকে তবে আপনার মর্নিং সিকনেস বা বমি বমি ভাব বেশি হবে। এছাড়াও আপনার মধ্যে প্রচুর পরিমাণে মুড সুইংস এর প্রবণতা দেখা দেবে অর্থাৎ হঠাৎই রেগে যাওয়া বা কান্না করার প্রবণতা বৃদ্ধি পাবে। গর্ভে পুত্র সন্তান থাকলে হয় এই লক্ষণগুলির ঠিক উল্টোটা। আবার অনেকের মতে হবু মায়ের শোয়ার ধরণই বলে দিতে পারে গর্ভে কন্যা না পুত্রসন্তান রয়েছে। প্রচলিত ধারণা অনুযায়ী ছেলে হলে বা দিকে পাশ ফিরে শুতেই পছন্দ করে থাকেন হবু মায়েরা। অন্যদিকে মেয়ে হলে ডান দিকে পাশ ফিরে শোয়ার প্রবণতা বেশি লক্ষ্য করা যায়।

এছাড়াও খাওয়ার ধরন ও লক্ষণ বলে দিতে পারে আপনার গর্ভে বেড়ে ওঠা সন্তানের লিঙ্গ। আপনার যদি খুব মিষ্টি খেতে ইচ্ছা করে সেক্ষেত্রে বলা যায় আপনি কন্যা সন্তানের জননী হতে চলেছেন। অন্যদিকে যদি খুব টক, ঝাল খেতে ইচ্ছা করে তবে সেক্ষেত্রে আপনার কোল আলো করে আসতে চলেছে পুত্র সন্তান। এছাড়াও অনেকের মতে যদি গর্ভাবস্থায় সন্তানের হৃদস্পন্দন বেশি হয়ে থাকে সেক্ষেত্রে কন্যা সন্তান আসছে বলেই ধরে নেওয়া হয়।

আপনার বেবি বাম্প এর আকৃতিও নির্ধারন করতে পারে আপনার সন্তানের লিঙ্গ অর্থাৎ আপনার বেবি বাম্পটি যদি নিচের দিকে বেশ ঝোলা হয় তবে সেক্ষেত্রে পুত্রসন্তানের আশা করা যেতে পারে। আবার অন্যদিকে যদি আপনার বেবিবাম্প উত্তল এবং পেটের মাঝখানে উঁচু হয় সেক্ষেত্রে ধরে নেওয়া যায় যে আপনার কন্যা সন্তান হতে চলেছে। চুলে তেল তেল ভাব, ত্বকে ব্রণের সমস্যা ইত্যাদি ইঙ্গিত বহন করে কন্যাসন্তানের অন্যদিকে পুত্রসন্তান হলে নাকি হবু মা আরো সুন্দরী হয়ে যান।

Tags

Related Articles

Close