×

Skin Care: পুজোর আগে মুখে গ্লো বাড়াতে চান? তবে কাঁচা দুধেই হবে মুশকিল আসান

প্রতিদিনের ব্যস্ততা এবং দূষণের মাঝে আমরা নিজেদের ত্বকের যত্ন নিতে প্রায় ভুলেই যাই! তবে সারাবছর যতই অনিয়ম হোক না কেন পুজোর মাসখানেক আগে থেকেই ত্বকের পরিচর্যার রীতিমতো তোড়জোড় শুরু হয়ে যায় বাঙ্গালীদের মধ্যে। তাই পূজার মরশুমে আমরা আমাদের এই প্রতিবেদনের মাধ্যমে আপনাদের জন্য নিয়ে এসেছি এক দুর্দান্ত ঘরোয়া টোটকা,যেখানে ঘরে বসেই কোনো নামিদামি প্রসাধনের মাধ্যমে নয় বরং কেবলমাত্র কাঁচা দুধের ব্যবহারে নিজেই পেয়ে যাবেন উজ্জ্বল ত্বক।

ভারতীয় রমণীদের রূপচর্চায় দীর্ঘকাল ধরে ব্যবহার হয়ে আসছে কাঁচা দুধ। কাঁচা দুধে থাকে ভরপুর মাত্রায় ভিটামিন,যা একটি মোক্ষম ক্লিনজার হিসেবে ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে সাহায্য করে। তাই রোদে পুরে ঘরে আসতেই ভেজা তুলোতে করে লাগিয়ে ফেলুন একটু কাঁচা দুধ। এছাড়াও ত্বকের গভীরে ঢুকে আদ্রতা বজায় রাখতেও কাঁচা দুধের জুড়ি মেলা ভার। প্রাকৃতিক ময়েশ্চারাইজার হিসেবেও কাঁচা দুধ ব্যবহার করতে পারেন নিয়মিত।

যে সকল মানুষেরা ব্রণ,ফুসকুড়ির সমস্যায় জেরবার হয়ে পড়েছেন তাদের জন্য দুধের মধ্যে থাকা ল্যাকটিক অ্যাসিড ত্বকের এই ধরনের সংক্রমণ রুখতে কাজে আসে। এছাড়াও কাঁচা দুধে থাকা কোলাজেন ত্বকের নতুন কোষ গঠনে সাহায্য করে আর সেই কারণেই মৃত কোষগুলিকে দূর করে তারুণ্য ধরে রাখতেও সাহায্য করে এই কাঁচা দুধ। এছাড়াও কাঁচা দুধে থাকা ভিটামিন ডি ত্বককে মসৃণ রাখতে ও হাইড্রোক্সি এসিড ত্বকের মৃতকোষ গুলিকে দূর করতে সাহায্য করে।

তাই ত্বকের জেল্লা ফিরিয়ে আনতে আজই বেসন,মধু,কাঁচা দুধ এবং এক চিমটে হলুদ মিশিয়ে তৈরি করে ফেলুন ফেসপ্যাক আর মিনিট পনেরো রেখে জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন মুখমণ্ডল। এছাড়াও আপনার ত্বকের বলিরেখা দূর করতে টক দই এবং কাঁচা দুধের মিশ্রন মুখমন্ডলে রেখে কুড়ি মিনিট লাগিয়ে জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এতে করে আপনার ত্বক থাকবে টানটান ও সতেজ।