লাইফস্টাইল

Skin Care Beauty Tips: দুধের মতো ফর্সা হবে ত্বক, বাড়িতেই বানিয়ে মাখুন জাদুকারি এই ফেয়ারনেস ক্রিম, শিখে নিন সহজ পদ্ধতি

কথায় আছে মাছে ভাতে, ভেতো বাঙালি! ভাত হল বাঙ্গালীদের প্রধান খাদ্য। তবে আপনি কি জানেন অতিরিক্ত ভাত খাওয়া শরীরের পক্ষে ক্ষতিকর হলেও আপনার ত্বকের জন্য এই ভাত ভীষণ উপকারী! কোরিয়ানরা খাদ্য হিসেবে ভাত খুব কম গ্রহণ করলেও ত্বকের ফর্সাভাব ও উজ্জ্বলতা বাড়াতে তাদের প্রধান উপকরণ হলো ভাত অর্থাৎ ভাতের তৈরি রাইসক্রিম!

ফর্সা হতে কে না চায়? আর এই ফর্সা হওয়ার জন্য বাজারে রয়েছে নানান নামিদামি ব্র্যান্ডের ক্রিম। তবে এর মধ্যে থাকা প্যারাবিন, মিনারেলস প্রভৃতি ত্বকের জন্য ভীষণ ক্ষতিকারক। দীর্ঘদিন যাবত ব্যবহার করলে আপনার ত্বকের ক্যান্সার পর্যন্ত হতে পারে। তাই চটজলদি বানিয়ে ফেলুন কোরিয়ার মহিলাদের সিক্রেট ভাত দিয়ে তৈরি এই ফেয়ার্নেস ক্রিম। মাত্র 7 দিন ব্যবহারেই আপনার ত্বকের রং আরও উজ্জ্বল হয়ে উঠবে একথা বাজি রেখে বলা যায়।

এই রাইসক্রিম বানানোর জন্য আপনাকে প্রথমে একটি পাত্রে পরিমাণমতো ভাত নিতে হবে। এরপর গাছ থেকে অ্যালোভেরা পাতা তুলে এনে সেটিকে জলের মধ্যে ভালোমতো করে ভিজিয়ে রাখতে হবে। যাতে এর মধ্যে থেকে সমস্ত টক্সিন বের হয়ে যায়। পরবর্তীতে পাতার মধ্যে থেকে জেল বের করে এই ভাতের মধ্যে মেশাতে হবে ও তার মধ্যে এড করতে হবে দুটি ভিটামিন ই ক্যাপসুল। এর পরেই উপকরণ গুলিকে ভালো মতো করে চামচ দিয়ে ব্লেন্ড করতে হবে যাতে এটি একটি রূপ নেয়।

এরপর ক্রিমটিকে সাত দিন মতো রেফ্রিজারেটরে রেখে দিতে হবে। ব্যস! তৈরি আপনাদের ফর্সা হওয়ার মহাঔষধী ভাত দিয়ে তৈরি রাইসক্রিম। প্রত্যহ শুতে যাওয়ার সময় এবং সকাল বেলায় ঘুম থেকে উঠে এই ক্রিমটি মুখে ভালো মতো ম্যাসাজ করে নিতে হবে। এরপর কুড়ি মিনিট রেখে জল দিয়ে ধুয়ে ফেলতে হবে। এই ক্রিমটি নিয়মমাফিক ব্যবহার করলে আপনি যে রেজাল্ট পাবেনই পাবেন তা অবশ্যম্ভাবী। তবে মনে রাখতে হবে এই ক্রিমটি মেখে আপনি কিন্তু রোদে বেড়াতে পারবেন না।

Tags

Related Articles

Close