লাইফস্টাইল

বাড়িতে পায়রা আসা কিসের ইঙ্গিত দেয়? জানলে চমকে যাবেন

হিন্দু ধর্মে অনেক কিছুকেই শুভ অশুভ হলে মানা হয়। বিশেষ করে জ্যোতিষ শাস্ত্রে পশুপাখিকে বেশ গুরুত্ব দেওয়া হয়। বাস্তুমতে এমনই কিছু নিয়ম প্রচলিত আছে সুখ শান্তির প্রতীক হিসেবে বিবেচিত পায়রাকে নিয়ে। সাধারণত মানুষের মনে পায়রাকে নিয়ে দুটি মত রয়েছে। কিন্তু বাস্তুমত কি বলছে! চলুন জেনে নেওয়া যাক পায়রা সংক্রান্ত শুভ ও অশুভ লক্ষণগুলির সম্পর্কে।

প্রায়শয় পায়রা বাড়ির বারান্দায় বা এসিতে এসে বাসা বানায়, অনেকে আবার জানলা ধারে ছাদে পায়রার জন্য চাল ছড়িয়ে দেয়। কিন্তু পায়রা বা যেকোনো প্রানী খেতে দেওয়া বাস্তুমতে শুভ হলেও বাড়িতে পায়রার বাসা বাঁধা কিন্তু অশুভ ইঙ্গিত বলেই বিবেচ‍্য।

সাধারণত বিশ্বাস করা হয় বাড়িতে পায়রার বাসা থাকলে তা অশুভ, বাড়ির বারান্দায় বাসা বাঁধা অর্থ গৃহেস্তের বাড়িতে দুর্ভাগ্য নিয়ে আসা। এছাড়াও মনে করা হয় বাড়িতে পায়রার বাসা থাকলে গৃহস্তে আর্থিক সংকট দেখা যায়। আসলে পায়রা বড্ড নোংরা করে এই নোংরা থেকেই আপনার গৃহের নেতিবাচক শক্তির আগমন ঘটার সম্ভবনা তৈরী হয়।

তবে হ‍্যা বাড়িতে বাসা বাঁধা থেকে বিরত থাকলেও পায়রাকে দূরে কোথাও ফাঁকা জায়গায় খাওয়াতে পারেন। বাস্তুশাস্ত্র অনুসারে পায়রাকে শস্য খাওয়ালে দেবী লক্ষ্মীর আশীর্বাদ পাওয়া যায়। এর সঙ্গে ঘরে পজিটিভ শক্তি প্রবাহ বাড়ে। তাই পায়রার বিষ্ঠা বা পায়রার বাসা থেকে দূরে থাকুন কিন্তু তারসাথেই পায়রাকে প্রতিদিন শস‍্যদানা দেওয়ার জন্য একটু দূরে ফাকা জায়গা খুঁজে নিন। বাস্তু বিশেষজ্ঞরা বলছে এভাবে পায়রাকে খাওয়ালে আপনার জীবনে অনেক পুন্য অর্জন হবে।

(বাস্তবিদদের পরামর্শ ও মতামতের ভিত্তিতে প্রতিবেদনটি লেখা হয়েছে।)

Related Articles