লাইফস্টাইল

Skin Care: সোনার মতো চকচকে ত্বক পেতে চান? তবে অ্যালোভেরা জেলেই হবে মুশকিল আসান

ত্বকের যত্ন নেওয়ার জন্য নানানরকম জিনিস ব্যবহার করা হয়। তবে রাসায়নিকযুক্ত বিভিন্ন জিনিস ব্যবহার করার ফলে ত্বকের অনেক ক্ষতি দেখা দেয়। এই অবস্থায় ঘরোয়া উপায়ে তৈরি কিছু জিনিস ব্যবহার করলে ত্বক অনেক ভালো থাকে। আজ আমরা সেরকমই একটি উপাদান সম্পর্কে আলোচনা করবো। যেটা সহজলভ্য হলেও তার গুণ অনেক বেশি।

আর এই উপাদান অন্য কিছু নয় সকলের পরিচিত অ্যালোভেরা। অ্যালোভেরা এমনিও আপনি ব্যবহার করতে পারেন বা তার সাথে কিছু উপাদান মিশিয়েও ব্যবহার করতে পারেন। এতে রয়েছে অ্যান্টি-মাইক্রোবিয়াল উপাদান। যা ব্রণের সমস্যা দূর করতে সাহায্য করে। এছাড়া এতে উপস্থিত অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট ত্বকের আর্দ্রতা ধরে রাখে।

শুধু তাই নয় অ্যালোভেরা জেলে রয়েছে একাধিক উপকারী উপাদান। যেমন- স্যাপোনিন, সুগার, লিগনিন, ভিটামিন, এনজাইম, মিনারেল, স্যালিসাইলিক অ্যাসিড এবং অ্যামিনো অ্যাসিড। এছাড়াও এতে রয়েছে ভিটামিন এ, সি, ই, ফলিক অ্যাসিড, ভিটামিন বি১২, কোলাইন। আসুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক অ্যালোভেরা জেল ব্যবহার করার নিয়ম সম্পর্কে।

দিনের যে কোনো সময় আপনি অ্যালোভেরা জেল ব্যবহার করতে পারেন। তবে সবসময় পরিষ্কার মুখে এটি লাগানো উচিত। প্রথমে মুখ ক্লিনজিং করে টোনার লাগিয়ে নিন। এরপর অ্যালোভেরা জেল লাগাতে পারেন। ময়শ্চারাইজার হিসেবে আপনি এটি ব্যবহার করতে পারেন। শুধু তাই নয় এটি ফেসপ্যাক হিসেবেও ব্যবহার করা যেতে পারে।

ফেসপ্যাক- অ্যালোভেরা ফেস প্যাক বানানোর জন্য অ্যালোভেরা জেল ও টিট্রি ওয়েল মিশিয়ে নিন। যা ত্বকের বিভিন্ন সমস্যা দূর করতে সাহায্য করে। ১ টেবিল চামচ জল, ২ টেবিল চামচ অ্যালোভেরা জেল এবং ২-৩ ফোঁটা টিট্রি অয়েল ভালো করে মিশিয়ে মুখে ও গলায় লাগিয়ে নিন। ১০-১৫ মিনিট পর জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

ফেস সিরাম- এই সিরাম বানানোর জন্য গোলাপ জল ও ভিটামিন-ই ক্যাপসুল প্রয়োজন। একটি পাত্রতে ২ টেবিল চামচ অ্যালোভেরা জেল, প্রয়োজনমতো গোলাপজল মিশিয়ে তাতে ভিটামিন-ই ক্যাপসুল দিন। যা সিরাম হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন।

নাইট ক্রিম- অ্যালোভেরা জেল নাইট ক্রিম হিসেবে ব্যবহার করা যেতে পারে। রাতে শুতে যাওয়ার আগে ক্লিনজিং করে টোনার লাগানোর পর এই ক্রিম ব্যবহার করতে পারেন।