লাইফস্টাইল

Skin Care: ফর্সা ও উজ্জ্বল ত্বক পেতে বাড়িতেই তৈরি করে মাখুন মসুর ডালের ফেস প্যাক, শিখে নিন সহজ পদ্ধতি

ত্বক চর্চার ক্ষেত্রে যেসকল ঘরোয়া উপাদান গুলি যুগ যুগ ধরে ব্যবহার হয়ে আসছে তার মধ্যে মুসুর ডাল হলো অন্যতম। ত্বকের ময়লা দূর করতে, বলিরেখা দূর করে ত্বককে টানটান করতে ,শুষ্ক ত্বকের ঔষধ হিসাবে এবং ত্বকের ঔজ্জ্বল্য ফিরিয়ে আনতে এর জুড়ি মেলা ভার। আগেকার দিনে রীতি অনুযায়ী বিয়ের আগের দিন থেকেই কনের ত্বককে উজ্জ্বল করে তোলার জন্য মুসুরির ডাল বেটে মাখানো হত।

মুসুরির ডালের মধ্যে থাকে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার এবং অ্যান্টি এজিং প্রপার্টিস। সাথে এতে থাকে প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন। এর মধ্যে থাকা নানান গুণাবলী ত্বককে ইনস্ট্যান্ট ফর্সা করে তুলতে সাহায্য করে।পাশাপাশি সান ট্যান দূর করতেও মুসুরির ডাল ভীষণ কার্যকরী। তবে আর দেরি কিসের? আসুন জেনে নেয়া যাক সম্পূর্ণ ঘরোয়া পদ্ধতিতে কিভাবে মুসুরির ডালের ফেসপ্যাক বানিয়ে আপনার ত্বকের ঔজ্জ্বল্য ফিরিয়ে আনবেন। নিম্নোক্ত ফেসপ্যাক গুলি সপ্তাহে দুই থেকে তিনবার ব্যবহারের মাধ্যমে পেয়ে যাবেন স্বাস্থ্যোজ্জ্বল ত্বক।

1) শুষ্ক ত্বক দূরীকরণে মুসুরির ডালের ব্যবহার- একটি পাত্রে 50 গ্রাম মত মুসুরির ডাল নিয়ে সেটিকে সারারাত ভিজিয়ে রাখুন অতঃপর সেটিকে বেটে নিয়ে তার মধ্যে এক চা চামচ আলমন্ড অয়েল এবং এক চা চামচ দুধ মিশিয়ে মিশ্রনটিকে পনেরো থেকে কুড়ি মিনিট মুখে লাগিয়ে রেখে ধুয়ে ফেলুন।

2) সেনসিটিভ ত্বকের জন্য মুসুরির ডালের ব্যবহার- 1 চা চামচ মুসুরির ডাল বাটার মধ্যে সমপরিমাণ আলমন্ড অয়েল, গ্লিসারিন এবং গোলাপজল মিশিয়ে 10 মিনিট মুখে লাগিয়ে রেখে ধুয়ে ফেলুন।

3) তৈলাক্ত ত্বকের জন্য মুসুরির ডালের ব্যবহার- 1 টেবিল-চামচ মুসুরির ডাল বাটার মধ্যে অ্যাড করুন 2 টেবিল চামচ দুধ এবং এক চিমটি হলুদ এরপর এই মিশ্রণটি মুখে লাগিয়ে কিছুক্ষণ রেখে স্ক্রাব করে ঘষে ঘষে তুলে ফেলুন। এটি আপনার ত্বকের তৈলাক্ত ভাব দূর করতে ফেসওয়াশ এর মত কাজ করবে। যদি আপনি নরমাল স্কিনের অধিকারী হন সেক্ষেত্রে দু’ফোঁটা নারকেল তেল অ্যাড করতে পারেন।

Tags

Related Articles

Close