মহানবমীর সকালে বানান দুর্দান্ত স্বাদের ভাপে আলুর দম, লুচি-পরোটার সঙ্গে জাস্ট জমে যাবে

বাঙালির বারো মাসে তেরো পার্বণ এর মধ্যে সবথেকে বড় পুজো এই দুর্গাপুজো। আজ মহাসপ্তমী আর কালকে মহাষ্টমী, মানেই উৎসবের আনন্দ মধ্য গগনে। তবে বাঙালির উৎসব তো অসম্পূর্ণ থেকে যায় পেটপুজা ছাড়া। পুজোর আগে যতই ডায়েট হোক এই চারটে দিন কবজি ডুবিয়ে বাঙালি মেনু না খেলে চলে নাকি? তবে মহাষ্টমী মানে কিন্তু ফ্রাইড রাইস চিকেন নয় বরং বাঙালির পছন্দের লুচি আলুর দম সবার প্রথমে থাকে।

আজকে আমরা জানাবো এমনই এক আলুর দমের রেসিপি যা অষ্টমীর দিন লুচির সাথে পরিবেশন করলে আঙুল চাটতে থাকবে সবাই। এ কিন্তু প্রতিদিনের আলুর দম নয় এই রেসিপিটির নাম “ভাপে আলুর দম”। চলুন জেনে নিন এই সুস্বাদু রেসিপিটি।

উপকরণ- আলু, তেলহ গোটা গোলমরিচ, গোটা জিরে, গোটা ধনে, তেজপাতা, গোটা শুকনো লঙ্কা, বড় এলাচ, ছোট এলাচ, লবঙ্গ, দারুচিনি, জায়ফল, জয়িত্রী গুড়ো, শুকনো আদাগুড়ো, পেয়াজ কুচি, আদা বাটা, রসুন কুচি, টমেটো কুচি, নুন, চিনি টক দই, কাঁচালঙ্কা কুচি, আমচুর পাউডার, ধনেপাতা কুচি।

প্রণালী- প্রথমেই এক কেজি ছোট আলু খোসা সহ ভালো করে ধুয়ে গরম তেলে ভালো করে ভেজে তুলে নিতে হবে।

এরপর শুকনো খোলাই একে একে পাঁচ ছটি গোটা গোলমরিচ, এক চামচ করে গোটা জিরে, গোটা ধনে, দুটি তেজপাতা তিন চারটি গোটা শুকনো লঙ্কা, একটি বড়ো এলাচ, দু-তিনটি ছোট এলাচ ৪-৫টি লবঙ্গ এক চামচ জায়ফল জয়েত্রী গুঁড়ো, এক টুকরো দারুচিনি এবং এক চামচ শুকনো আদা গুঁড়ো একসাথে মিশিয়ে খানিকক্ষণ নেড়ে নিতে হবে এবং এগুলিকে মিক্সার গ্রাইন্ডার দিয়ে মিহি গুঁড়ো করে নিতে হবে।

এবার পরবর্তী পর্যায়ে প্রেসার কুকার বসিয়ে গরম তেলের মধ‍্যে মাঝারি সাইজের দুটি পেঁয়াজ কুচি এক চামচ আদা বাটা এক চামচ রসুন কুচি, দু চামচ টমেটো কুচি স্বাদ অনুযায়ী নুন সামান্য চিনি এক কাপ টক দই ও প্রস্তুত করে নেওয়া মসলার গুঁড়ো দিয়ে ভালো করে নাড়াচাড়া করতে হবে যতক্ষণ না কাঁচা মসলার গন্ধ যায়।

মসলা ভালো করে কষিয়ে নেওয়ার পর কুকারে আগে থেকে রাখা আলু দিয়ে সবকিছু সঙ্গে ফের ভালো করে মিশিয়ে নিতে হবে। কিছু সময় পর পেঁয়াজ ভাজা হয়ে এলে পরিমাণ অনুযায়ী জল দিয়ে প্রেসার কুকারের মুখ ১০ মিনিট বন্ধ রেখে রান্না করে নিতে হবে।

একদম শেষে কুকারের ঢাকনা সরিয়ে তার মধ্যে ইচ্ছে অনুযায়ী কাঁচা লঙ্কা কুচি, এক চামচ আমচুর পাউডার,কিছু পরিমাণ ধনেপাতা কুচি, ও সামান্য ভাজা মসলার গুঁড়ো দিয়ে খানিকক্ষণ নেড়ে নিলেই প্রস্তুত ” ভাপে আলুর দম “।