অর্থনীতিনিউজ

প্রতিমাসে আয় হবে ১০ লক্ষ টাকা, লাভজনক এই ব্যবসার কাছে জলভাত নামিদামি চাকরি

বর্তমানে অনেকেই ব্যবসার দিকে ঝুঁকে পড়ছেন, কিন্তু ব্যবসা করতে চাইলেও সঠিক ব্যবসার আইডিয়া বা পুঁজির জন্য পিছিয়ে আসতে হচ্ছে অনেককেই। ব্যবসা শুরু করতে গেলে বড় অঙ্কের পুঁজি এবং ক্ষতি হওয়ার ভয় মানুষের ব্যবসা করবার পথে সবচেয়ে বড় বাঁধা হয়ে দাঁড়াচ্ছে। কিন্তু আজ আপনাদের জানাবো এমন একটি ব্যবসার কথা, যা দিয়ে আপনি স্বল্প বিনিয়োগে ভালো অঙ্কের টাকা উপার্জন করতে পারবেন। আর ক্ষতির সম্ভাবনা নেই বললেই চলে। চলুন তবে আর দেরি না করে জেনেনিই বিস্তারিতভাবে।

সম্প্রতি আজ আপনাদের যে ব্যবসার আইডিয়াটি দেব সেটি হল জনপ্রিয় কোম্পানি আমূলের। আমরা সকলেই জানি বড় বড় কোম্পানি তাদের ফ্র্যাঞ্চাইজি দিয়ে থাকে, যেগুলি নিয়ে মোটা অংকের টাকা আয় করা যেতে পারে। আমুল বর্তমানে একটি অতি সুপরিচিত কোম্পানি। এই কোম্পানির ফ্রাঞ্চাইজি নিয়ে আপনি ভালো অঙ্কের টাকা প্রতি মাসে আয় করতে পারবেন। আমুল কোম্পানির ফ্রাঞ্চাইজি নিয়ে মাসে প্রায় 5 থেকে 10 লক্ষ টাকার পণ্য বিক্রি করতে পারবেন আপনি।

এছাড়াও আমূল তার প্রোডাক্ট ভিত্তিক নির্দিষ্ট পরিমাণে কমিশন আপনাকে দেবে। আমূল দুগ্ধজাত পণ্যে 10%, দুধের প্যাকেটে 2.5%, আইসক্রিমে 20% কমিশন দিয়ে থাকে। এছাড়াও আপনি যদি চান আইসক্রিম স্কুপিং পার্লারের ফ্র্যাঞ্চাইজি নিতে, তবে সেক্ষেত্রে রেসিপি ভিত্তিক আইসক্রিম, হট চকলেট ড্রিঙ্ক, আইসক্রিম সেক, পিৎজা প্রভৃতির ওপর 50% কমিশন দিয়ে থাকে আমূল। তবে এর ফ্রাঞ্চাইজি নিতে গেলে কোম্পানির কিছু শর্তাবলী মানতে হয়। চলুন জেনে নিই সেগুলি কি –

আমুল আউটলেট ফ্র্যাঞ্চাইজি নেবার জন্য শর্তাবলী

150 বর্গ ফুট জায়গা প্রয়োজন।

ফ্র্যাঞ্চাইজি নেওয়ার জন্য দু লক্ষ টাকা বিনিয়োগ করতে হবে।

ব্র্যান্ড সুরক্ষার জন্য 25 হাজার টাকা জমা দিতে হবে।

সংস্কারের জন্য 1 লক্ষ টাকা দিতে হবে।

সরঞ্জামের জন্য 75 হাজার টাকা খরচ করতে হবে।

আমুল আইসক্রিম স্কুপিং পার্লারের ফ্র্যাঞ্চাইজি নেবার জন্য শর্তাবলী

300 বর্গফুট জায়গার প্রয়োজন।

ফ্র্যাঞ্চাইজি নেওয়ার জন্য 5 লক্ষ টাকা বিনিয়োগ করতে হবে।

ব্র্যান্ড সুরক্ষার জন্য 50 হাজার টাকা জমা দিতে হবে।

সংস্কারের জন্য 4 লক্ষ টাকা দিতে হবে।

সরঞ্জামের জন্য 1.5 লক্ষ টাকা খরচ করতে হবে।

Related Articles