অর্থনীতি

LIC-র দুর্দান্ত পলিসি, মাত্র ৬৩ টাকা করে জমালেই হবেন ৭ লক্ষ টাকার মালিক

দিনে মাত্র ৬৪ টাকা করে বাঁচাতে পারলেই আপনি পেতে পারেন ৭ লক্ষ টাকা৷

LIC-তে এমন কিছু পলিসি রয়েছে, যেটাতে আপনি সঠিকভাবে টাকা জমাতে পারলেই লাখপতি হয়ে যেতে পারেন। দিনে মাত্র ৬৪ টাকা করে বাঁচাতে পারলেই আপনি পেতে পারেন ৭ লক্ষ টাকা৷ LIC NEW JEEVAN ANAND৷ এই পলিসিতে মিলবে এমন দুর্দান্ত সুবিধা। যাঁদের আয় কম, তাঁরা খুব সহজেই এই পলিসিতে বিনিয়োগ করতে পারেন।

এছাড়াও এই পলিসির আরও কিছু সুবিধা রয়েছে। পলিসি ম্যাচিউর করে যাওয়ার পরেও এই পলিসির কভারেজ শেষ হয় না৷ ম্যাচিউরিটির সময় পলিসি হোল্ডার একবার টাকা পাবেন, আবার পলিসি হোল্ডারের মৃত্যুর পর তাঁর পরিবারের সদস্য বা নমিনি যত টাকার পলিসি করানো থাকবে, সেই সমপরিমাণ অর্থ পেয়ে যাবেন।

এই পলিসি করার ক্ষেত্রে পলিসি হোল্ডারদের ন্যূনতম বয়স ১৮ বছর হতে হবে। আর সর্বোচ্চ বয়স হতে হবে ৫০ বছর। ন্যূনতম ১ লক্ষ টাকার পলিসি করতে হয়৷ গ্রাহকের আয়ের উপর নির্ভর করে সর্বোচ্চ সে কত টাকার পলিসি করতে পারবে। কেউ যদি ৪ লক্ষ টাকার পলিসি করেন, তাহলে তাঁর ডেথ সাম অ্যাসিওরড থাকবে ৫ লক্ষ টাকা। অর্থাৎ পলিসির রিস্ক পিরিওড শুরু হওয়ার পর ২০ বছরের মেয়াদের মধ্যে পলিসি হোল্ডারের মৃত্যু হলে তাঁর নমিনি অন্তত ৫ লক্ষ টাকা পেয়ে যাবেন।

আবার ৪ লক্ষ টাকার জীবন আনন্দ পলিসি করলে ২০ বছর পর সাড়ে ৭ লক্ষ টাকার কিছু বেশি অর্থ ফেরত পাওয়া যাবে৷ এরপর টাকা পেয়ে যাওয়ার পর ভবিষ্যতে যখনই পলিসি হোল্ডারের মৃত্যু হোক না কেন, তাঁর নমিনি বা পরিবারের সদস্য আরও ৪ লক্ষ টাকা পাবেন এই অভিনব পলিসির মাধ্যমে। এছাড়া এই পলিসিটি করলে প্রয়োজনে এলআইসি থেকে লোন নিতে পারেন পলিসি হোল্ডার৷ এ ছাড়াও এই পলিসির মাধ্যমে ৮০সি ধারায় আয়কর ছাড় পাওয়া যাবে৷ এর পাশাপাশি পলিসি ম্যাচিউরিটির সময় পাওয়া অর্থও আয়কর মুক্ত আয় হিসেবেই ধরা হবে৷

উদাহরণ স্বরূপ- কেই ২৬ বছর বয়সে ৪ লক্ষ টাকার জীবন আনন্দ পলিসি করলে সেক্ষেত্রে প্রথম বছরে তাঁর বার্ষিক প্রিমিয়াম পড়বে ২৩৮৫৭ টাকা৷ দ্বিতীয় বছর থেকে প্রিমিয়াম কমে হবে ২৩৩৪৪ টাকা৷ অর্থাৎ দৈনিক প্রিমিয়াম পড়বে মাত্র ৬৪ টাকা করে৷

Tags

Related Articles

Close