×

চিন্তা শেষ বার্ধক্য জীবনের, এবার প্রতিমাসে এই প্রকল্পে নিবেশ করলে পেয়ে যাবেন ৫০ হাজার টাকা পেনশন

চাকুরীজীবী হোক কিংবা ব্যাবসায়িক-যেকোনো মানুষের ক্ষেত্রেই ভবিষ্যতে আর্থিক সুনিশ্চিতিকরনের জন্য প্রয়োজন অর্থের। তাই অল্প বয়স থেকেই যদি স্বল্পঅর্থ বিনিয়োগ করা যায় তা ভবিষ্যতের জন্য জীবনকে আরও সুনিশ্চিত করে আর বিনিয়োগের ক্ষেত্রে ভারতীয়দের সর্বপ্রথম পছন্দ হলো এলআইসি। তাই আজ আমরা আমাদের এই প্রতিবেদনের মাধ্যমে আপনাদের কাছে তুলে ধরতে চলেছি এলআইসির এক জবরদস্ত স্কিমের খোঁজ!

“লাইফ ইনসিউরেন্স কর্পোরেশন অফ ইন্ডিয়া”এর তরফ থেকে আনা এই সরল পেনশন যোজনা প্রকল্পের আওতায় আপনারা একবার বিনিয়োগেই পেয়ে যাবেন সারাজীবনের আর্থিক সুনিশ্চিয়তা অর্থাৎ একবার নিবেশেই মিলবে সারাজীবনের জন্য 50 হাজার টাকার পেনশন। মাসিক কিছু টাকা নিবেশেই মিলবে দারুন লাভ। এমনকি 60 বছর নয় বরং 40 বছর বয়সের পর থেকে পেতে পারবেন পেনশন এর সুবিধা।

এলআইসি সরল পেনশন যোজনা একটি ইমিডিয়েট annuty প্রকল্প। এই প্রকল্পের লাভ আপনারা দুইভাবে উঠাতে পারেন। এক প্রথম “সিঙ্গেল লাইফ পলিসি”র ক্ষেত্রে পলিসি গ্রাহক যতদিন বেঁচে থাকবেন ততদিন তিনি পেনশন পাবেন ও তার মৃত্যুর পর নমিনির কাছে চলে যাবে প্রিমিয়ামের টাকা কিন্তু “জয়েন্ট লাইফ” প্রকল্পের ক্ষেত্রে স্বামী স্ত্রী একত্রে যদি পলিসির সুবিধা নেন তবে কারওর একজনের মৃত্যু হলে পেনশনের টাকা অপরজন পেয়ে যাবেন এবং দুই পক্ষের মৃত্যু হলে নমিনির কাছে চলে যাবে প্রিমিয়ামের পুরো টাকা।

এই সরল পেনশন যোজনার আওতায় পেনশন গ্রহণের সর্বনিম্ন বয়স 40 বছর এবং সর্বোচ্চ বয়স 80 বছর অর্থাৎ পেনশন গ্রহণকারী যতদিন জীবিত থাকবেন ততদিন তিনি পেনশন পেতে পারবেন। তবে এক্ষেত্রে বলে রাখা ভালো আপনি ঠিক কত টাকা পেনশন পেতে চান তা আপনাকে আগে থেকেই ধার্য করে সেই হিসেবে প্রিমিয়াম প্রদান করতে হবে। এক্ষেত্রে মাসিক সর্বনিম্ন 1000 টাকা, প্রতি তিনমাসে 3000 টাকা,6 মাসে 6000 টাকা এবং এক বছরে 12000 টাকা পেনশন গ্রহণের সুযোগ রয়েছে। তবে পেনশন পলিসি গ্রহণে ছয় মাসের মধ্যে আপনি পলিসিটিকে স্যারেন্ডার করতে পারেন!