×

শাহরুখ যদি অন্য মেয়ের সঙ্গে থাকতে চায় তাহলে কি করবেন? গৌরির উত্তর শুনে চমকে গেছে সকলে

কথায় আছে বলিউডি বিনোদন দুনিয়ায় সম্পর্কের বাঁধন অনেকটা ঠুনকো কাঁচের মতো। এই দুনিয়ায় ভালোবাসা,বিশ্বাস এবং সম্মানের বিশেষ কোনো মর্যাদা নেই দিন শেষে। তবে কি কুপ্রবাদকে রীতিমতো ভেঙে খর্ব করে দিয়েছেন শাহরুখ-গৌরী। দীর্ঘ তিন দশকেরও বেশি সময় ধরে একে অপরের সাথে সুখী দাম্পত্যে রয়েছেন তারা। 1991 সাল থেকে এযাবৎকাল পর্যন্ত শাহরুখ-গৌরী আজও নিউকাপলদের কাছে আদর্শ।

স্বামী শাহরুখ খান হলেন বলিউডের অন্যতম কিংবদন্তি অভিনেতা। শুধুমাত্র দেশ নয় দেশের গন্ডি ছাড়িয়ে বিদেশেও রয়েছে তার জনপ্রিয়তা। হাজার হাজার রমণীর তার প্রেমে আসক্ত আর এই সকল জনপ্রিয়তা নিয়ে কি ঈর্ষাবোধ করেন স্ত্রী গৌরী? এই সম্পর্কে “কফি উইথ করণ”এ পরিচালক করণ জোহার একদা প্রশ্ন ছুড়েছিলেন শাহরুখপত্নীর দিকে যার উত্তরে এমনই এক বিস্ফোরক মন্তব্য করেছিলেন গৌরী যা শুনে রীতিমতো চোখ কপালে উঠে ছিল নেটিজেনদের।

1991 সালে একে অপরের সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছিলেন গৌরী-শাহরুখ। সেইসময় তাদের ভিন্ন ধর্ম পরিচয়কে সম্পর্কের মাঝে বাধা হিসেবে দাঁড়াতে দেয়নি অভিনেতা। পরবর্তীতে তাদের সম্পর্কের সমীকরণ নিয়ে পরিচালক করন জোহার গৌরীকে প্রশ্ন করেছিলেন, প্রতিনিয়ত সুন্দরী মেয়েদের সাথে ওঠাবসা করেন তার স্বামী। তার পরেও কি নিরাপত্তাহীনতায় ভোগেন না গৌরী? প্রতিষ্ঠত এই ইন্টেরিয়ার ডিজাইনার তথা শাহরুখপত্নী গৌরি খান এদিন তার উত্তরে জানান, প্রথমত এই ধরনের প্রশ্ন শুনলে তিনি অত্যন্ত রাগান্বিত হন।

পরবর্তীতে গৌরী স্পষ্টতই জানিয়ে দেন, শাহরুখ যদি অন্য কাউকে সঙ্গী হিসেবে বেছে নেয় তবে তিনি অন্য কোন পুরুষকে নিজের সঙ্গী হিসেবে বেছে নিয়ে তাঁর সাথে থাকতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করবেন। তবে ঈশ্বরের কাছে প্রার্থনা করবেন তার নতুন সঙ্গী যেন হ্যান্ডসাম হয় অর্থাৎ এদিন শাহরুখপত্নীর উত্তর ছিল,”শাহরুখ যদি অন্য কারো সাথে থাকতে চাই সে থাকুক তবে আমি ওর সঙ্গে আর থাকতে চাইবো না। আমিও নিজের মতো করে নিজের জীবনসঙ্গী বেছে নেব।”