বিনোদন

এবার নতুন ভারত গড়ার ডাক দিলেন কঙ্গনা রানাওয়াত, সোশ্যাল মিডিয়ায় অসাধারণ প্রতিক্রিয়া দিচ্ছে দেশবাসী

বরাবরই বলিউডের এক চর্চিত বিষয় অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াত। বহু সময় সাহসী অভিনয়ের পাশাপাশি নিজের সাহসিকতার পরিচয় দিতে পিছপা হননি অভিনেত্রী। রাখঢাক না করে সাফ কথা মুখের উপরেই বলতে পছন্দ করেন কঙ্গনা। যদিও তাকে নিয়ে সমালোচনার শেষ নেই,তবে তাতে বিশেষ কর্ণপাত করেননি অভিনেত্রী।এরই মাঝে এবার নয় ভাবনা কঙ্গনার। এক নতুন ভারত গড়ে তোলার ডাক দিলেন কঙ্গনা রানাওয়াত।

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় সবথেকে বেশি একটিভ থাকতে দেখা যায় অভিনেত্রীকেই। টুইটারে হোক বা ইনস্টাগ্রামে মুহূর্তে মুহূর্তে যে কোন ঘটনার আপডেট দিতে থাকেন অভিনেত্রী কঙ্গনা। যা নিয়ে বহুবার সমালোচনা করেছেন নেটিজেনদের,আবার প্রশংসাও করেছেন। অনেকেই প্রশ্ন তুলেছেন কেন এত অ্যাক্টিভ কঙ্গনা। অন্যদিকে আবার বলিউড বলছে কঙ্গনা স্বার্থসিদ্ধির জন্য টুইটারে এসেছে। এরই মাঝে নতুন ঘোষণা অভিনেত্রী কঙ্গনা।এতদিন টুইটারে অভিনেত্রীর প্রোফাইলের নাম ছিল ‘টিম কঙ্গনা রানাউত’। কিন্তু হঠাৎই অভিনেত্রী প্রোফাইল থেকে সরল ‘টিম’ নামটি। আর যা ঘিরে উঠেছে প্রচুর প্রশ্ন। এরই মাঝে শুক্রবার অভিনেত্রী জানান তিনি এবার অফিসিয়ালি টুইটার প্রোফাইলে পা রাখলেন। তাই পাল্টেছে নাম।

এরপরে টুইট করে অভিনেত্রী সাফ জানালেন, তাঁর একমাত্র অ্যাজেন্ডা হল- ‘রাষ্ট্রবাদ’। টুইট করে অভিনেত্রী লেখেন ‘ নতুন ভারত গড়ে তুলতে সোশ্যাল মিডিয়াতেই আমরা সরব হতে পারি। সুশান্তের মৃত্যুর প্রতিবাদ যেরকম গোটা দুনিয়া করেছে, তাতে আমার আরও বেশি করে বিশ্বাস হয়ে গিয়েছে যে, সোশ্যাল মিডিয়ার সত্যিই অত্যন্ত শক্তিশালী মাধ্যম। যেখানে সরব হয়ে আমরা নতুন এক ভারত গড়ে তুলতে পারি’।

উল্লেখ্য, গত ১৪ জুন নিজের ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার হয় সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃতদেহ। অভিনেতার মৃত্যুর পর থেকেই উঠেছিল স্বজনপোষণের অভিযোগ। যদিও অভিনেতার ময়নাতদন্ত রিপোর্ট বলেছিল আত্মহত্যা করেছেন অভিনেতা। কিন্তু তা মানতে নারাজ ছিল সুশান্তের পরিবার থেকে অনুরাগীরা। একই কথা বলেছিলেন অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াতও। তিনি বারবারই সুশান্তের মৃত্যুর জন্য দায়ী করেছেন বলিউডের নামিদামী পরিচালক প্রযোজক থেকে স্টার কিটদের,তুলেছেন স্বজনপোষণের অভিযোগ। আর এবার নতুন ভারত গড়ার প্রসঙ্গ তুলে ফের শিরোনামে কঙ্গনা।

Tags

Related Articles

Close