×

একটি মাত্র কথায় পরিষ্কার বুঝিয়ে দিলেন অভিরুপ তাঁর কে হন! শ্রাবন্তীর উত্তর ঘিরে ফের জলঘোলা শুরু

অভিরুপ আর শ্রাবন্তীর সম্পর্কে নতুন মোড়। এক মন্তব্যে বুজিয়ে দিলেন অভিরুপ। আবির্ভাবের সময় থেকেই টলিউডের সুন্দরী নায়িকাদের তালিকা করলে শীর্ষ কয়েকটি স্থানের মধ্যেই থাকবেন শ্রাবন্তী চ্যাটার্জি (Srabanti Chatterjee)। তাই বলে বয়স তো থেমে থেমে থাকেনা। দেখতে দেখতে ৩৬ এ পা দিলেন তিনি। কিন্ত এই মধ্য চল্লিশে এসেও তার চেহারার জেল্লা, গ্লামারে গুনে গুনে দশ গোল দেবেন এখনকার উঠতি নায়িকাদের। মাত্র কয়েকদিন আগেই গেল এবারের জন্মদিন। এবারের জন্মদিনের ছুটি কাটাতে পাড়ি দিয়েছেন বিদেশে। তার সাথে গেছে ছেলে অভিমন্যু আর গেছেন? রহস্যময় সেই ব্যক্তি কে জানেন?

শ্রাবন্তীর সাথে তার তৃতীয় স্বামী রোশন সিং এর সম্পর্ক ভেঙে যাওয়ার পর থেকেই কলকাতার এই ব্যবসায়ীর সাথে সম্পর্কের গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে। তিনি হলেন অভিরূপ নাগ চৌধুরী। যদিও তিনি অভিরূপকে বিশেষ বন্ধু বলেই পরিচয় দেন। যদিও বাড়ির পুজোই হোক বা বিদেশ ভ্রমণ, কিংবা কোনো ফিল্মি পার্টি সব জায়াগাতেই দুজনকে এক সাথেই দেখা যাচ্ছে। শোনা যাচ্ছে মালদ্বীপের মতো এবারের ট্রিপেও নাকি এই বিশেষ বন্ধুকে সাথে করে নিয়ে গেছেন শ্রাবন্তী।

নিজেকে সিঙ্গল বললেও তারা যে ডুবে ডুবে জল খাচ্ছেন তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। সম্পর্ক যে শুধুমাত্র আর বন্ধুত্বেই সীমাবদ্ধ নেই তা বেশ কিছু দিন ধরেই আঁচ পাওয়া যাচ্ছিল। তবে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানাতে গিয়ে খোদ প্রেমিক মহাশয় হাটে হাঁড়ি ভেঙে ফেলেছেন। মালদ্বীপে বেড়াতে যাওয়ার ছবি পোস্ট করে অভীরূপ লিখেছেন , ‘শুভ জন্মদিন.. সবসময় এইভাবেই তারকার দ্যুতি ছড়াতে থাকো… তোমার বিরাট ফ্যান’। প্রেমিকবরকে চটজলদি শ্রাবন্তীর উত্তর, ‘ধন্যবাদ মিস্টার ফ্যান’। শ্রাবন্তী যতই মুখে বলুন যে অভিরূপ তার ‘স্পেশ্যাল ফ্রেন্ড’ ব্যাপারটা যে বেশ মাখো মাখো অবস্থায় পৌঁছেছে সেটা সবাই বুঝতে পারছেন।

শ্রাবন্তী চিরদিনই মিডিয়ার কাছে বেশ চর্চার বিষয়। সে পেশাগত কারণেই হোক আর ব্যক্তিগত কারণে। কয়েকদিন আগে খোলামেলা ছবি পোস্ট করে সোশ্যাল মিডিয়ায় উষ্ণতা চিড়িয়েছিলেন। কামনাময়ী উষ্ণ চাহনি আর শরীরের উন্মাদনাতে ঝড় তুলেছেন বহু পুরুষের বুকে। তবে বিতর্কে মন দেবার সময় তার হাতে এই মুহূর্তে নেই। পেশার কারণে খুবই ব্যস্ত তিনি। টলিউড, ঢালিউডেও দুদেশেই সবুটিয়ে কাজ করছেন তিনি। সফলও হয়েছেন এই বঙ্গ অভিনেত্রী। এ মাসেই বাংলাদেশ থেকে মুক্তি পেয়েছে তার ও শান্ত খান অভিনীত ছবি ‘বিক্ষোভ’ যা তৈরি হয়েছে Bangladesh -এর সড়ক আন্দোলনকে কেন্দ্র করে।