বিনোদন

Shilpa Shetty: রাজের পর্নোগ্রাফির কারবারে জড়িত শিল্পা শেট্টি? তদন্তে মুম্বই পুলিশ

শিল্পা শেট্টির স্বামী রাজ কুন্দ্রা পর্নোগ্রাফি চক্রে গ্রেপ্তার হওয়ার পর থেকে পুঙ্খানুপুঙ্খ তদন্ত করে দেখছে পুলিশ। রাজের এই পর্নোগ্রাফির চক্রের সাথে শিল্পার কোন যোগ আছে কিনা তাও খতিয়ে দেখছে তদন্তকারীরা। প্রাথমিক তদন্তে এখনো পর্যন্ত স্বামী রাজ কুন্দ্রার নীলর ছবি তৈরি এবং তা বিভিন্ন অ্যাপসের মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার ব্যবসার সাথে নায়িকা স্ত্রী শিল্পা শেট্টির কোন যোগ পায়নি পুলিশ।

অনেকেই হয়তো জানেন না শিল্পা শেট্টির স্বামী রাজ কুন্দ্রার আসল নাম রিপু সুদান বালকৃষ্ণ কুন্দ্রা। যিনি মোট ৯ টি সংস্থার ডিরেক্টর পদে রয়েছেন। শিল্পার সংস্থা Shilpa Yog Private Limited-এরও ডিরেক্টরের পদে রয়েছেন রাজ। এছাড়াও Cinemation Media Works, Bastian Hospitality, Kundra Constructions, J.L. Stream, Aqua Energy Beverages, Viaan Industries, Whole and Them Some Private Limited এবং Clearcom Private Media র মতো সংস্থার ডিরেক্টরের পদে রয়েছেন রাজ। শিল্পা রয়েছেন ২৩ টি সংস্থার ডিরেক্টরের পদে। এক কথায় স্বামী-স্ত্রী দুজনেই একসাথে সামলাতেন বিভিন্ন ব্যবসা। আর তাই রাজের এই পর্নোগ্রাফি চক্রেও কোন ভাবে শিল্পা জড়িয়ে রয়েছেন কিনা তা জানার চেষ্টা করছে তদন্তকারী দল।

জয়েন্ট পুলিশ কমিশনার (ক্রাইম) মিলিন্দ ভারাম্বে বিবৃতিতে জানিয়েছেন, ‘এখনও পর্যন্ত পর্ন কাণ্ডে আমরা শিল্পা শেট্টির সক্রিয় ভূমিকার খোঁজ পাইনি। তদন্ত চালানো হচ্ছে। ভারাম্বে বলেন, আর্জি জানানো হচ্ছে যারা রাজ কুন্দ্রা এবং তাঁর পার্টনারদের হাতে হেনস্থা হয়েছেন, তারা এগিয়ে এসে মুম্বই ক্রাইম ব্রাঞ্চের সহযোগিতা করুন। অপরাধীদের বিরুদ্ধে যথাযথ অ্যাকশন নেওয়া হবে।’

সোমবার পর্নগ্রাফি চক্রে রাজ কুন্দ্রাকে গ্রেফতার করার পর তার বিরুদ্ধে একাধিক ধারায় মামলা রুজু করা হয়। অভিনেত্রীর স্বামীর বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধি এবং প্রযুক্তি আইনে ৪২০ (প্রতারণা), ২৯২ এবং ২৯৩ (অশ্লীল ছবি ও অশালীন বিজ্ঞাপন তৈরি এবং তা প্রচার) অনুযায়ী মামলা দায়ের করা হয়েছে। এছাড়াও রয়েছে আইটি অ্যাক্ট ও Indecent Representation of Women (Prohibition) Act-এর বিভিন্ন ধারা।সোমবার রাতে রাজকে গ্রেফতার করে নিয়ে যাওয়া হয় মুম্বই পুলিশের ক্রাইম ব্রাঞ্চের প্রপার্টি সেল জে জে হাসপাতালে, সেখান থেকে ডাক্তারি পরীক্ষা পর নিয়ে যাওয়া হয় মুম্বই পুলিশ কমিশনারের অফিসে। তারপর রাতে তাকে ক্রাইম ব্রাঞ্চের কাস্টডিতে রাখা হয়। মঙ্গলবার রাজ আগাম জামিনের আবেদন করলেও তা মঞ্জুর করেনি আদালত। আপাতত ২৩ জুলাই পর্যন্ত জেল হেফাজতেই থাকতে হবে অভিনেত্রীর স্বামীকে।

Tags

Related Articles

Close