বিনোদন

ঐন্দ্রিলাহীন জীবন কেমন কাটছে সব্যসাচীর? প্রায় এক মাস পর মুখ খুললেন অভিনেতা

গত ২০শে নভেম্বর ইহজগতের সকল মায়া ত্যাগ করে পরজগতে পাড়ি দিয়েছেন অভিনেত্রী ঐন্দ্রিলা শর্মা। টানা ৭ বছর ক্যান্সারের সাথে লড়াই করার পর শেষমেশ মৃত্যুর কাছে হার মানতে হয়েছে তাকে। তার এভাবে অকালে চলে যাওয়া এখনো পর্যন্ত মেনে নিতে পারেননি পরিবারের পাশাপাশি অনুরাগীরাও। মেয়েকে হারিয়ে ভেঙে পড়েছেন ঐন্দ্রিলার মা-বাবা।

একইসাথে প্রেমিকাকে হারিয়ে বিধ্বস্ত অভিনেতা সব্যসাচী চৌধুরী। সকলের থেকে একপ্রকার নিজেকে গুটিয়ে নিয়েছেন তিনি। বন্ধ করে দিয়েছেন সমস্ত সোশ্যাল মিডিয়া প্রোফাইল। নীরবে পরিবারের প্রতি দায়িত্ব পালন করে চলেছেন তিনি। ঐন্দ্রিলার মৃত্যুর পর কেটে গিয়েছে একমাস। এতোদিন পর্যন্ত এই বিষয়ে মুখ খোলেননি অভিনেতা সব্যসাচী।

তবে সম্প্রতি একটি সংবাদমাধ্যমের তরফ থেকে তার সাথে যোগাযোগ করা হলে এই বিষয়ে মুখ খুলেছেন তিনি। তিনি যে একমাসের মধ্যে শোক কাটিয়ে উঠতে পেরেছেন তেমনটা নয়। তবে তিনি জানিয়েছেন ‘আমি এখন কিছুটা ঠিক আছি’। এর থেকে বেশি কিছু জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেননি। তবে সংবাদমাধ্যমের তরফ থেকে তার অবস্থান সম্পর্কে জিজ্ঞেস করা হয়।

তিনি বলেন, ‘আমি সত্যি এই বিষয়ে কোনো ইন্টারভিউ দিতে বা কথা বলতে চাই না। ধন্যবাদ’। আসলে শোকে একপ্রকার পাথর হয়ে গিয়েছেন অভিনেতা সব্যসাচী। কারণ, অভিনেত্রীর মৃত্যুর পর চোখ থেকে এক ফোঁটা জল পর্যন্ত গড়ায়নি তার। যার দ্বারা এটাই স্পষ্ট যে ভেতরে ভেতরে বিধ্বস্ত হলেও বাইরে থেকে পাথর হয়ে গিয়েছেন তিনি। কোনো অনুভূতিই যেন কাজ করছে না তার।