নিউজবিনোদনরাজনীতিরাজ্য

ঘরে রয়েছে পুঁচকে ইউভান, বারাকপুরে বাচ্চাদের সঙ্গে হাত মিলিয়ে জন জোয়ারে মিশে গেল রাজ

বাংলা চলচ্চিত্রের অন্যতম পরিচালক হওয়ার পাশাপাশি তিনি এখন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের একজন সৈনিক। বিধানসভা নির্বাচনের আগেই বিভিন্ন রাজনৈতিক দলগুলি তে যোগ দিচ্ছে তারকা সারি। ইতিমধ্যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিয়েছেন পরিচালক রাজ চক্রবর্তী।

ব্যারাকপুর বিধানসভা কেন্দ্র থেকে দলের হয়ে রাজ পেয়েছেন ভোটের টিকিটও। ভোটের মহাযুদ্ধে নামার পূর্বে কিছুদিন আগেই সস্ত্রীক পুজো দিয়ে এসছেন পুরীর জগন্নাথ মন্দিরে, আর এবার পুরোদমে নিজের বিধানসভা কেন্দ্র ব্যারাকপুরে প্রচারে নামলেন রাজ।

এদিন সাদা চোস্তা পাঞ্জাবি তে ভোটের প্রচারে দেখা গিয়েছে রাজকে। ব্যারাকপুরে নিজের কেন্দ্রে একেবারে ঘরের ছেলে হয়ে উঠলেন পরিচালক। তাকে দেখা গেল পাড়ার অলিতে গলিতে চায়ের দোকানে নিজের কেন্দ্রের মানুষের সাথে বসে রীতিমতন আড্ডার মেজাজে। শিশুদের কোলে নিয়ে আদর করলেন আবার কখনো সকলের আবদারে তুললেন সেলফি।

রাজ এবং শুভশ্রীর জুটিকে বাংলার মানুষ বেশ পছন্দ করেন, তাদের প্রত্যেকটি বিষয় নিয়েই মানুষের গভীর কৌতুহল, আবার তারই মাঝে রাজ-শুভশ্রীর পরিবারে নতুন অতিথি ইউভান হয়ে উঠেছে সকলের চোখের মনি, টলিপাড়ার থেকে সাধারণ দর্শক প্রত্যেকেই বেশ পছন্দ করে ছোট্ট সিম্বা কে। আর এবার সিম্বার বাবা নতুন ভূমিকায়। ভোটে লড়বেন বলেই হয়তো চটজলদি সাড়ে পাঁচ মাসে সেরে ফেলেছেন ছেলের অন্নপ্রাশন। এখন রাজের সামনে অপেক্ষা করছে বড় লড়াই। পরিচালক হিসাবে এতদিন বহু মানুষের ভালোবাসা কুড়িয়েছেন রাজ চক্রবর্তী, এবারে দেখার জননেতা হয়ে কতটা মানুষের কাছের হয়ে উঠতে পারেন রাজ।

Tags

Related Articles

Close