বিনোদনভাইরাল ভিডিও

Nusrat Jahan: ‘নকল হিন্দু সেজে সনাতন ধর্মকে অপমান’, লাল পাড় সাদা শাড়িতে আগমনী শুট করতেই কটাক্ষের শিকার নুসরত

দেবীপক্ষের সূচনায় অভিনেত্রীর পোস্ট করা এই বিশেষ ভিডিও দেখে অনেকেই নুসরতের সাহসিকতাকে কুর্নিশ জানিয়েছেন

মহালয়ার দিনে লাল পাড় সাদা শাড়ি ও একরাশ ভেজা খোলা চুলের অতিশয্যে বাঙালি নারীর চিরন্তন রূপ-সৌন্দর্য্যকে তুলে ধরলেন তৃণমূল সাংসদ নুসরাত জাহান। মহালয়া উপলক্ষে এদিনের সাজে অভিনেত্রী পদ্মহাতে ধরা দিলেন উমার বেশে। চোখে হালকা কাজল এবং আলতা রাঙা পায়ে অভিনেত্রী তার এই স্নিগ্ধ অবতারে যেন দশোভূজা নয় ধরা দিলেন দিয়ে “দ্বিভুজা”রূপেই!

দেবীপক্ষের সূচনায় মহালয়ার দিনে এমনই শান্ত-স্নিগ্ধ রূপে উমাবরণে অভিনেত্রীর এই লুক মন জয় করেছে নেটিজেনদের। তাদের মতে মর্ডান লুকের থেকে সাদামাটা শাড়ি ও হালকা মেকআপের এই সাজেই অভিনেত্রী অনন্যা। দেবীপক্ষের সূচনায় অভিনেত্রীর পোস্ট করা এই বিশেষ ভিডিও দেখে অনেকেই অভিনেত্রীর সাহসিকতাকে কুর্নিশ জানিয়েছেন।

তবে ধর্মের ধ্বজাধারীদের নজর এড়ায়নি অভিনেত্রীর এই পোস্ট। হিন্দু-মুসলিম নির্বিশেষে নায়িকাকে দুই ধর্মের মৌলবাদী মানুষেরা রীতিমতো ধুয়ে দিয়েছেন। কেউ লিখেছেন,নকল দুর্গা সেজে সনাতন ধর্মকে অপমান করছে নুসরাত আবার অনেকে একজন মুসলিম হওয়া সত্ত্বেও হিন্দু দেবীর অবতারে অবতীর্ণ হওয়ার নুসরাতকে মৃত্যু ভয় দেখিয়ে সমালোচনার রোষানলে বিদ্ধ করেছেন।

তবে সমালোচনাকারীদের পাশাপাশি অভিনেত্রীর অগণিত অনুগামীরা প্রশংসায় ভরিয়েছেন নুসরাতকে। মন্তব্য বক্সে ভেসে উঠেছে সেই ভালোবাসা,”একজন মুসলিম হয়েও এত সুন্দর করে বাঙালি ঐতিহ্যকে তুলে ধরার জন্য ধন্যবাদ।” তবে অনেকেই সার্জারির পর নুসরাতের বিসদৃশ ঠোটের প্রতি কটুক্তি করতেও ছাড়েননি। অনেকে আবার অভিনেত্রীকে কটাক্ষের তীরে বিদ্ধ করে লিখেছেন,”মহা ঠগবাজ মেয়ে আবার নাকি মা দুর্গা সেজেছে”। তবে সমালোচনাকারীদের দূরে সরিয়ে রেখে নিজেকে নিয়েই ব্যস্ত রয়েছেন অভিনেত্রী!

Related Articles