বিনোদন

Nusrat Yash: সঙ্গে নেই ঈশান, যশের কোলে বসে অন্তরঙ্গ ফটোশুটে মত্ত ‘সেক্সি মাম্মা’ নুসরত!

এই মুহূর্তে টলিউডে সবথেকে বেশি চর্চার বিষয় হলো যশ এবং নুসরতের সম্পর্ক। নুসরত জাহানের সাথে যশের সম্পর্কর বিষয়ে জানতে বাকি নেই আর কারোর। প্রথম থেকেই সকলে অনুমান করেছিল যে নুসরতের সন্তানের পিতা যশ দাসগুপ্তই। তবে সেই অনুমান বাস্তবে পরিণত হয় যখন কিছুদিন আগে পুরসভা অনুমোদিত কিছুদিন আগে পুরসভা অনুমোদিত বার্থ সার্টিফিকেটে নুসরত জাহান (Nusrat Jahan)-এর পুত্রসন্তান ঈশান (Yishaan)-এর পিতৃপরিচয় প্রকাশ্যে আসে। যেখানে ঈশানের বাবার নামের জায়গায় লেখা ছিল দেবাশিস দাশগুপ্ত (Debashish Dasgupta)। বিধানসভা নির্বাচনের সময় জানা গিয়েছিল টলিউডের নায়ক যশের প্রকৃত নাম দেবাশিস। পাশাপাশি বিশ্বকর্মা পুজোর দিন নুসরতের সিঁথিতে সিঁদুর দেখে অনেকেই প্রশ্ন তুলেছিল তবে কি যশের সাথে বিয়ে সেরে ফেলেছেন অভিনেত্রী! পরে সেই প্রশ্নের উত্তর পাওয়া গিয়েছে যখন যশের জন্মদিনের কেকে নুসরত ‘হাজব‍্যান্ড’ লিখে পোস্ট করেন। এবার প্রকাশ্যে এলো যশ ও নুসরতের পুজো ফটো শুট।

একটি বিখ্যাত সংবাদমাধ্যমের জন্য ফটোশুট সেরেছেন নুসরত ও যশ। সেখানে নুসরত কখনও আরবিক লুকে ধরা দিয়েছেন, কখনও বা যশের কোলে উঠে ছবি তুলেছেন। কখনো নুসরতকে ঘাগড়ায় সেজেছেন আবার কখনো মাথায় আফগানি টায়রা পড়েছিলেন অভিনেত্রী। যশকে অবশ্য দেখা গিয়েছে ফর্ম‍্যাল পোশাকেই। ফটোশুটে কখনো যশ এবং নুসরতকে নিভৃত আলাপচারিতায় মগ্ন হতে দেখা গিয়েছে আবার কখনো রোমান্টিক মুডে ক্যামেরার সামনে ধরা দিয়েছেন যুগল। সেই ফটোশুট ইতিমধ্যে নেটদুনিয়ায় ভাইরাল হয়েছে।

ইতিমধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় ঈশানকে নিয়ে নুসরতকে নানান কটুক্তি করা হয়েছে। পুজোর সময় ছেলেকে ছেড়ে যশের সাথে অনেকটা সময় কাটাচ্ছেন নুসরত যার ফলে উঠেছে প্রশ্ন, অনেকেই বলতে শুরু করেছেন, ঈশান তাহলে আয়ার কাছে মানুষ হচ্ছে! তবে নুসরতের বক্তব্য ছেলে ঈশনের থেকে রোজই কিছু না কিছু শিখছেন তিনি। সন্তানের জন্য রাত জাগছেন তিনি।

নুসরত গর্ভবতী হওয়ার পর থেকে তার পুত্র সন্তান জন্মানোর পর্যন্ত ঈশানের পিতৃপরিচয় নিয়ে বারবার কটাক্ষ শিকার হতে হয়েছে নুসরতকে। অবশেষে মুখ খুলেছেন অভিনেত্রী। নুসরত বলেন, ঈশান বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের সন্তান, তা কে বলেছে! সেই সময় নুসরতের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন যশ, তিনি বলেছিলেন, শরীর নুসরতের হওয়ার কারণে সিদ্ধান্ত তাঁর হওয়া উচিত। নুসরত অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার পর থেকে তার c-section পর্যন্ত প্রতি সময় তার পাশে ছায়াসঙ্গীর মতন ছিলেন যশ। যার ফলে নুসরাতের সন্তানের পিতা যে যশই তা প্রথম থেকেই অনেকেই অনুমান করে নিয়েছিলেন। এতদিন নিজেদের মুখে কোনো মন্তব্য করেননি যশ নুসরত। তবে যশের জন্মদিনে ঈশানের পিতৃপরিচয় সকলকে জানিয়ে দিয়েছেন নুসরত। যশই যে ঈশানের বাবা তা আর জানতে বাকি নেই কারোর। ধীরে ধীরে সমস্ত জল্পনার জট খুলে সত্যি সামনে এসেছে। তবে এই সমস্ত সত্যি-মিথ্যে নিয়ে একেবারেই মাথাব্যথা নেই যশ কিংবা নুসরাতের বরং তারা এখন একে অপরের সাথে কোয়ালিটি টাইম স্পেন্ড করতেই ব্যস্ত।

Tags

Related Articles

Close