×
Jannah Theme License is not validated, Go to the theme options page to validate the license, You need a single license for each domain name.

প্রেম-ভালোবাসা করে নয়, বরং এই শর্তানুযায়ী মুকেশ আম্বানিকে বিয়ে করতে রাজি হয়েছিলেন নীতা আম্বানি

ভারতের সর্বকালের সবথেকে সফলতম ব্যবসায়ীদের মধ্যে একজন হলেন মুকেশ আম্বানি (Mukesh Ambani)। বহুদিন ধরে তিনি ভারতের সবথেকে ধনী মানুষ হিসেবে পরিচিত হয়ে আসছেন। আর তার স্ত্রী হওয়ার সুবাদে নীতা আম্বানিও (Nita Ambani) এক অতি পরিচিত ব্যক্তিত্ব। তবে কেবল মুকেশ আম্বানীর ঘরনী হিসেবে নয় নিতা আম্বানি নিজেও রিলায়েন্স বর্তমানে ফাউন্ডেশন ধীরুভাই আম্বানি ইন্টারন‍্যাশনাল স্কুলের এর চেয়ারপারসন।

নিজের জগতে মুকেশ আম্বানির যতটা সফল ততটাই সফল তার অর্ধাঙ্গিনী। এককথার পারফেক্ট জুটি তারা। কিন্তু জানেন কি প্রথম থেকেই পারফেক্ট জুটি কিন্তু হয়ে ওঠেননি তারা বরং নীতা আম্বানি বিয়ের জন্য উল্টে শর্ত জারি করেছিলেন! প্রেম ভালোবাসা নয় শর্তানুযায়ীই হয়েছিল বিয়ে!

জানেন কি ছিল সেই শর্ত! পৃথিবীর বিখ্যাত ধনকুবেরের স্ত্রী হওয়ার সুবাদে কার্যত রানীর মতোই জীবন যাপন করেন নিতা আম্বানি তবে একটা সময় তিনি সামান্য অর্থের বিনিময়ে একটি স্কুলে চাকরি করতেন। একটি অনুষ্ঠানে ধীরুভাই আম্বানি(Dhirubhai Ambani) তাকে দেখেই পুত্রবধূ হিসাবে পছন্দ করে করে নেন। কিন্তু নীতা আম্বানির (Nita Ambani) স্পষ্ট বক্তব্য ছিল তার শর্ত মানা হলে তবেই তিনি বিয়ে করবেন।

আসলে মধ্যবিত্ত পরিবারের নীতা নিজের কাজ নিয়ে খুব সচেতন ছিলেন। সে সময় মাত্র ৮০০ টাকার বিনিময়ে বাচ্চাদের স্কুলে পড়াতেন। কিন্তু তিনি ভয় পেয়েছিলেন বড়লোক বাড়ির বউ হলে সে কাজ হয়তো বন্ধ হয়ে যেতে পারে। তাই তিনি বিয়ের পরেও নাচ ও শিক্ষাকতা চালিয়ে যাবেন এই শর্তই রেখেছিলেন। যে শর্ত সাদরে মেনে নিয়েছিলেন আম্বানী পরিবার। বিয়ের পরেও একটি স্কুলে পড়াতে যেতেন তিনি এরপর পরবর্তীতে চাকরি ছেড়ে রিলায়েন্স গ্রুপে সক্রিয় ভূমিকা নেন।