×

Neena Gupta: ‘সব অভিনেতাদের কচি নায়িকা চাই, বলিউডের গোপন কেচ্ছা ফাঁস নীনা গুপ্তার!

বলিউডের লিঙ্গ বৈষম্য ও বয়সবাদ নিয়ে বিস্ফোরক নীনা গুপ্তা। বয়স যে শুধুই একটা সংখ্যা মাত্র-এই কথাটার প্রকৃষ্ট উদাহরণ নীনা গুপ্তা। কেরিয়ারের শুরুর দিকে তেমন সাফল্য না পেলেও বয়স বাড়ার সাথে সাথে হয়ে উঠেছিলেন বলিউডের অন্যতম পরিচিত নাম। ছক ভাঙতে তিনি বরাবরই পছন্দ করেন। কথাবার্তাও বলেন কোনোরকম রাখঢাক না রেখেই। এহেন নীনা গুপ্তা সম্প্রতি মুখ খুললেন ইন্ডাস্ট্রিতে নারী-পুরুষ বৈষম্য নিয়ে। তিনি এও বলেন অনেক হিরোই বেশি বয়সের অভিনেত্রী দের তুলনায় ‘তরুনী অভিনেত্রী’দের সঙ্গে কাজ করতেই আগ্রহী।

১৯৮২ সালে ‘সাথ সাথ’ ছবি দিয়ে বলিউডে ডেবিউ করেছিলেন নীনা। তারপর দীর্ঘ সময় বড়পর্দায় এবং টেলিভিশনে অভিনয় করবার পর মাঝে কিছুটা ব্রেক নিয়ে সম্প্রতি ‘বাধাই হো’ ছবি দিয়ে আবার শুরু করেছেন তাঁর কেরিয়ারের দ্বিতীয় ইনিংস। এছাড়া কন্যা মাসাবা গুপ্তা অভিনীত মাসাবা মাসাবা-২ তে মাসাবার মায়ের চরিত্রেই অভিনয় করেছেন নীনা। নতুন সিজনে রাম কাপুরের বিপরীতে দেখা গিয়েছে নীনাকে।

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে বলিউডের অন্দরের লিঙ্গ বৈষম্য এবং বয়সবাদ নিয়ে বললেন নীনা। তিনি জানান, ‘২-৩টে এমন প্রোজেক্ট ছিল, যখন আমি পরিচালককে জিজ্ঞাসা করেছি আমার বিপরীতে কে রয়েছেন? তাঁরা বলেছেন আপনি কারুর নাম প্রস্তাব করুন। আমি পালটা বলেছি, এটা আমার জন্য বলা খুব কঠিন, কারণ আমার সঙ্গে কেউ কাজই করতে চায় না’।

মাসাবা মাসাবাযে তার বিপরীতে অভিনয় করার জন্য রাম কাপুরকে অন্তর থেকে ধন্যবাদ জানান ৬৩ বছর বয়সী নীনা। বয়সে ছোট হয়েও নীনার নায়ক হওয়ার সাহস দেখিয়েছেন তিনি, এতেই খুশি অভিনেত্রী। তিনি বলেন, ‘সবাই চায় কম বয়সী মেয়েদের সঙ্গে কাজ করতে। এটা আলাদা কথা হয়ত আমাকে সেইসব মেয়েদের চেয়ে ইয়াং দেখতে লাগে (মুচকি হাসি)। আমাদের সমাজ পাল্টানি। আমরা হলাম সংখ্যালঘু। আমরা পিতৃতান্ত্রিক সমাজে বাস করি, এবং এখানে সবকিছু এইরকমই থাকবে’।