×

ভোলে ভান্ডারি, দুর্দান্ত সুরে গান গেয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড় তুললেন মিলন কুমার, প্রশংসায় মুখর ভক্তরা

একবিংশ শতাব্দীতে সোশ্যাল মিডিয়া কিছু মানুষের জীবনে আশীর্বাদ স্বরূপ নেমে এসেছে। সোশ্যাল মিডিয়াকে কাজে লাগিয়ে সমাজের নানান প্রান্তিক মানুষ তথা রানু মন্ডল,ভুবন বাদ্যকারের মতো মানুষদের জীবন বদলে গিয়েছে আর সেই তালিকায় নবতম সংযোজন হল নিত্যানন্দপুর গ্রামের বাসিন্দা মিলন কুমার। প্রয়াত গায়ক কেকের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে গাওয়া এই গান বদলে দিয়েছে তার ভাগ্যের ফেরে।

প্রত্যন্ত গ্রামের এই গানের ফেরিওয়ালা ছোট থেকেই দারিদ্র্যের সাথে লড়াই করে বড় হয়েছেন। বড় হয়ে বাবার পেশাকেই বেছে নিয়েছেন জীবিকা হিসাবে। তাই ভোর হতেই বর্ধমান কাটোয়া লোকালের হুইসেল বাজতেই বেরিয়ে পড়েন গানের ফেরি করতে। একটি কারাওকে মেশিনের মাধ্যমে ট্রেনে ট্রেনে গান শুনিয়ে নিজের উপজীব্য আয় করেন এবং তাতেই সংসার চালান।

প্রয়াত গায়ক কেকে কে শ্রদ্ধা জানিয়ে ইউটিউব মাধ্যমে মিলন কুমারের রেকর্ডিং ভাইরাল হওয়ার পর থেকেই রীতিমতো সেলিব্রিটির পর্যায়ে পৌঁছে যান তিনি। একাধিক স্টেজ শো এর পাশাপাশি বিভিন্ন স্টুডিওর হয়ে গানের রেকর্ডিং করেন মিলন কুমার। ধীরে ধীরে বদলাতে থাকে জীবনের আঙ্গিক। সম্প্রতি ফের দেবাদিদেব মহাদেবের আরাধনার গান গেয়ে সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হলেন মিলন কুমার।

শ্রাবণ মাসের পূর্ণতিথিতে দেবাদিদেব মহাদেবের আরাধনায় মেতে ওঠে সারা পৃথিবীবাসী। শিবের মাথায় জল ঢেলে তাকে সন্তুষ্ট করতে সমবেত হন আপামর ভক্তরা আর সেই আবহে “ভোলে ভান্ডারি” গান গেয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় জনপ্রিয়তা পেলেন মিলন কুমার। মণিকাঞ্চন মাঝির লেখা এই গানটি “চয়েস ইন্টারন্যাশনাল” নামক ইউটিউব চ্যানেল থেকে আপলোড করা হয়েছে। মিলন কুমারের গাওয়া এই গানে লিটন এবং পূজা নামক দুই অভিনেতাকে অভিনয় করতে দেখা গিয়েছে। সবমিলিয়ে বর্তমানে নিজের একের পর এক কাজের মাধ্যমে ছাপ ছেড়ে যাচ্ছেন মিলন কুমার!