বিনোদন

বিয়ের ডেট ফাইনাল হলেও কেন মিঠুনের সঙ্গে সম্পর্ক ভাঙলেন? কারন জানিয়ে মুখ খুললেন মমতা শঙ্কর

1975 আর তারপর 2022 মাঝে ৪৬ বছরের বিরতি। হ্যাঁ ৪৬ বছর পরে কামব্যাক করতে চলেছেন এককালীন জনপ্রিয় জুটি মিঠুন চক্রবর্তী ও মমতা শঙ্কর, নেপথ‍্যে দেবের প্রজাপতি। পরিচালক অভিজিৎ সেনের এই ছবিতে হারিয়ে যাওয়া পুরনো বন্ধু দুজনে আবার এক ফ্রেমে ধরা দিতে চলেছেন। কিন্তু মাঝে এতো বছরের বিরতি কেন! তবে কি এর পিছনে রয়েছে কোনো তিক্ততা!

ভারতীয় উপমহাদেশের নৃত্যাঙ্গনের দিকপাল উদয় শঙ্করের মেয়ে মমতাশঙ্কর। ৪৭ বছর আগে মিঠুনের সঙ্গে অভিনয় করেছিলেন মৃণাল সেনের মৃগয়াতে। সেই সময় থেকেই একে অপরের প্রতি আকৃষ্ট হয়েছিলেন তারা। এমনকি অনেকের অজানা যে তাদের সম্পর্ক বিয়েতে পরিণতি পেতে চলেছিল। কিন্তু ভাগ‍্য বোধহয় তাদের জন্য আলাদা পথ বেছে রেখেছিল তাইতো বিয়ে ঠিক হলেও তা পরিণতি পাওয়ার আগে ভেঙে যায়।

পুরনো সম্পর্ক নিয়ে কি আজও সেই আক্ষেপ রয়েছে! কেমন ছিল নতুন ছবিতে প্রাক্তনের সাথে অভিনয় করার অভিজ্ঞতা! এত বছর পর জুটি হিসেবে পর্দায় কামব‍্যাক করার পর এবার সেই বিষয় নিয়েই অকপট জবাব দিলেন অভিনেত্রী। সম্প্রতি সকলের সাথে শেয়ার নিলেন নিজের মনের কথা।

অভিনয় প্রসঙ্গে অভিনেত্রী জানান এত বছর বাদে মিঠুনের সঙ্গে অভিনয় করার ক্ষেত্রে কোন কিছুই অস্বাভাবিক ঠেকেনি তার কাছে। বরং মনে হচ্ছিল এইতো সেদিন শুটিং করেছিলেন দুজনে। বিয়ে ভেঙে গেলেও বন্ধুত্ব আগের মতই রয়েছে তাদের। মমতাশঙ্কর জানান আজো মিঠুনের পরিবারের সাথে তার পরিবারের যোগাযোগ অটুট রয়েছে। মিঠুনের মা ও বোনের সাথে আজও নিয়মিত কথা হয় তার।

তবে বিয়ে ভেঙে যাওয়ার জন্য ভগবানকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন অভিনেত্রী। আসলে মিঠুন নিজে অভিনেতা হলেও মমতার নাচ ছবি করা পছন্দ করতেন না। বউ হলে বাড়িতে থাকবে এমনটাই ধারণা ছিল তার। তাই মমতার মনে হয়ে যোগিতায় ঠিক ছিল মিঠুনের জন‍্য। আর তার জন‍্য চন্দ্রোদয় ঠিক। তাই এত বছর পরে তার মনে এই পুরনো সম্পর্ক নিয়ে আক্ষেপ নেয় কোনো বরং চন্দ্রদয়ের মতোন স্বামী পেয়ে তিনি তার স্বপ্নকে সফল করে তুলতে পেরেছেন।