×

মনে আছে ‘ম্যায়নে পেয়ার কিয়া’র সুন্দরী অভিনেত্রীকে? এখন পুরো চেহারা বদলে গেছে, দেখে চেনা দায়

যুগে যুগে ভারতীয় বিনোদন ইন্ডাস্ট্রিতে আবির্ভাব ঘটেছে একাধিক অভিনেতা-অভিনেত্রীদের। তবে কেউ কেউ নিজের নাম পাকাপোক্ত করে তুলতে পারলেও অনেকেই হারিয়ে গিয়েছেন লাইমলাইটের দুনিয়া থেকে চিরতরে আর নব্বইয়ের দশকের বলিউডের একজন অন্যতম মুখ ছিলেন ভাগ্যশ্রী। সালমান খানের প্রথম মুভির এই নায়িকা ডেবিউ মুভিতেই অসাধারণ জনপ্রিয়তা অর্জন করলেও পরবর্তীতে হারিয়ে গিয়েছিলেন চিরতরে!

“ম্যায়নে পেয়ার কিয়া” মুভিতে ভাগ্যশ্রীর সরল নিষ্পাপ চরিত্রকে বিশেষভাবে গ্রহণ করেছিল দর্শক মনন। বলতে গেলে ভাগ্যশ্রীর অভিনয়ের জন্যই হিট হয়েছিল সালমান খানের এই সিনেমা। সাল্লু মিয়ার সাথে ভাগ্যশ্রীর জুটি 90 দশকের অন্যতম ক্রেজে পরিণত হয়েছিল বিনোদন দুনিয়ায়। তবে এই মুভির পড়ে হঠাৎই ভাগ্যশ্রী হারিয়ে যান বলিউড দুনিয়া থেকে। কেননা “ম্যায়নে পেয়ার কিয়া” মুভির পর যে ক’টি ফিল্মে তিনি অভিনয় করেছিলেন সবকটিই বক্স অফিসে মুখ থুবড়ে পড়ে রীতিমতো।

একের পর এক ফ্লপ দেওয়ার কারণে বলিউডে আর নিজের মত করে কামব্যাক করতে পারেনি নায়িকা। অন্যদিকে মাধুরী,জুহি চাওলার মতো একাধিক অভিনেত্রী বক্সঅফিস দখলের লড়াইয়ে নেমে পড়েছিলেন ইতিমধ্যেই। যার ফলে স্বামী হিমালয়ের সাথে বিবাহোত্তর সময়ে সংসারের দিকে মনোযোগী হন এই অভিনেত্রী। অনেকেই মনে করে থাকেন স্বামী হিমালয় তাকে আসতে দেয়নি বিনোদন দুনিয়ায়। তবে এব্যাপারে সংবাদপত্রকে দেওয়া সাক্ষাৎকার অভিনেত্রী স্পষ্টতই জানান, “অনেকেই মনে করে থাকেন হিমালয় আমাকে বলিউড ছাড়তে বাধ্য করেছে কিন্তু এটা একদমই সত্যি নয়। আমি হিমালয়ের সাথে এতটা জীবন কাটাতে পেরে অত্যন্ত খুশি। বলিউড থেকে সরে আসা আমার নিজস্ব সিদ্ধান্ত ছিল।”

অতঃপর বছর 33 কেটে যাওয়ার পর সিরিয়াল “স্মার্ট জোড়ি”তে স্বামী হিমালয়ের সঙ্গে কামব্যাক করেছেন ভাগ্যশ্রী। স্বাভাবিকভাবেই নায়িকার অনুরাগীরা অভিনেত্রীকে ফেরত পেয়ে বিশেষভাবে উচ্ছ্বসিত হয়ে পড়েছেন। তবে গ্ল্যামারের দিক থেকে আজও 33 বছর পূর্বের “ম্যায়নে পেয়ার কিয়া” মুভির ভাগ্যশ্রীর থেকে একটুও কম যান না তিনি আর অভিনেত্রীর এই গ্ল্যামারের ঝলক ইনস্টাগ্রাম, ইউটিউব এর মত প্লাটফর্মে হামেশাই দেখা যায়!