বিনোদন

মৃত্যুর পর সন্মান, সেরা অভিনেতার পুরষ্কার পেলেন প্রয়াত অভিষেক, যা গ্রহণ করতে গিয়ে চোখে জল স্ত্রী-কন্যার

স্বামীর না ভোলা স্মৃতিকে আঁকড়ে ধরে, স্বামীর দেখানো পথকেই পাথেয় করে আগামী জীবন কাটাতে চান প্রয়াত অভিনেতা অভিষেক চট্টোপাধ্যায়ের স্ত্রী সংযুক্তা চট্টোপাধ্যায়। নিত্যদিন স্বামীর স্মৃতির কথা মনে করে আজও অশ্রুসজল হয়ে ওঠে তার চোখ। জীবনে এখন একটাই লক্ষ্য ছোট্ট মেয়ে ডলকে মানুষের মতো করে মানুষ করে তোলা। এদিন “পঞ্চভুজ” পরিবারের নন্দনে আয়োজিত প্রয়াত অভিনেতার শ্রদ্ধার্ঘ্য অনুষ্ঠানে সম্মুখমঞ্চে এমন কথাই শোনা গেল প্রয়াত অভিনেতার স্ত্রীয়ের মুখে।

সামনেই মুক্তি পেতে চলেছে প্রয়াত অভিনেতার শেষ ছবি “পঞ্চভুজ”। ইতিমধ্যেই বেশ কিছু ফিল্ম ফেস্টিভালসহ “পোর্টব্লেয়ার ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল”এ এই ছবিতে অভিনয়ের জন্য সেরা অভিনেতার পুরস্কার পেয়েছেন অভিষেক চট্টপাধ্যায়। আর এদিন লন্ডনে আয়োজিত অনুষ্ঠানে সেই পুরস্কারই প্রয়াত অভিনেতার স্ত্রী সংযুক্তা এবং মেয়ে সাইনার হাতে তুলে দিল ছবির পরিচালক রানা বন্দ্যোপাধ্যায়।

পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে এদিন প্রয়াত অভিনেতার স্ত্রী ভক্তদের উদ্দেশ্যে কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করে তাদের পাশে থাকার জন্য অশেষ ধন্যবাদ জানান। অনুরাগীদের এদিন মঞ্চে দাঁড়িয়ে তিনি বলেন, “ডলকে বড় করো, ডল বড় হবে, এই কথাগুলোই আমাকে মোটিভেট করছে। দয়া করে এগুলো তোমরা করতে থাকো। আমি সত্যিই এগোবো, ডলকে বড় করব।” পরবর্তীতে রাত্রিকালীন একটি দীর্ঘ ফেসবুক পোস্টে তিনি প্রতিমুহূর্তে প্রয়াত অভিনেতা উপস্থিতির কথা উল্লেখ করে জানান যেন তার পরলোকগামী স্বামী তাকে দিয়ে নানান কাজ পরোক্ষভাবে করিয়ে নিচ্ছেন।

সাথে ছবি প্রসঙ্গে এদিন অভিনেত্রী জানান, “ছবির প্রতিটি সংলাপ অসাধারণ। গায়ে কাঁটা দেবে। মৃত্যুর কথা, আত্মার কথা ওর মুখে রয়েছে। ভাবটা এমন যেন সব জানত কি হবে।” ছবির ট্রেইলারে কো-স্টার সোমা বন্দ্যোপাধ্যায়ের চোখে চোখ রেখে অভিষেক জানান, “মৃত্যুর কাছে আত্মসমর্পণ করাটাকি বাঞ্ছনীয়?” যার জবাবে শোনা যায়, “মৃত্যু তো অনিবার্য তাকে মেনে নিতে বাধা কোথায়।” অদ্ভুতভাবে ছবির ট্রেইলারে প্রয়াত অভিনেতার মুখে মৃত্যুর কথা শুনে রীতিমতো চমকে গিয়েছেন সকলে। সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী মাসেই প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাবে “পঞ্চভুজ” এবং শেষবারের মতো অভিনেতার অভিনয় দেখার জন্য বর্তমানে মুখিয়ে আছেন অনুরাগীরা!

Related Articles

Back to top button