×

এক রাতের জন্য কত টাকা নেন? স্বস্তিকার উত্তরে অবাক সকলে

টলিপাড়ার অন্যতম সুন্দরী নায়িকাদের মধ্যে একটি নাম স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়। সুন্দরী হওয়ার পাশাপাশি টলি ইন্ডাস্ট্রিতে ‘ঠোঁট কাটা’ হিসেবেও পরিচিত অভিনেত্রী স্বস্তিকা। আর তার ঠোঁট কাঁটা স্বভাবের জন্য জন্য বহুবার নানা বিতর্কেও জড়িয়েছেন তিনি। কিন্তু তা সত্ত্বেও নিজের মতামত খোলাখুলি বলতেই পছন্দ করেন অভিনেত্রী। কাউকে ভয় না পেয়ে সপাটে জবাব দিতে সিদ্ধহস্ত স্বস্তিকা। বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ধরনের পোস্ট করেও ভাইরাল হয়েছে স্বস্তিকা।

মাঝেমধ্যেই নানান রকম হেয়ার স্টাইলে ভিন্ন লুকে ধরা দেয় স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়। লুক নিয়ে বরাবরই এক্সপিরিমেন্ট করা পছন্দ তাঁর। এক্সপেরিমেন্ট-র মাঝেই ফের বিতর্কে জড়িয়ে ছিলেন স্বস্তিকা। হঠাৎই নেট পাড়ায় এক ব্যক্তি স্বস্তিকাকে জিজ্ঞেস করে বসে ‘এক রাতের জন্য কত টাকা নেন’?

তন্ময় ঘোষ নামের এক ট্যুইটার ব্যবহারকারী স্বস্তিকাকে এই ধরনের প্রশ্ন করে। যদিও চুপ করে থাকেনি অভিনেত্রী। ওই ট্যুইটটের পাল্টা জবাবে স্বস্তিকা লেখেন, ‘স্যার, আপনার সেই সামর্থ্য নেই। আপনি কল্পনা করতে পারেন কেবল বিনামূল্যে। তাই সেই চেষ্টাই করুন’। স্বস্তিকার এই উত্তরে অনেকেই তার প্রশংসা করেছে। স্বস্তিকার অনুরাগীদের মধ্যে একজন একজন লিখেছেন, ‘স্বস্তিকা আপনাকে ভালোবাসি। আপনার ব্যক্তিত্ব আমাদের মুগ্ধ করে’।

এরই মাঝে কিছুদিন আগে নতুন ধরনের হেয়ারকাট করে সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবি পোস্ট করেছিলেন স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়। নতুন হেয়ার স্টাইলের ছবি পোস্ট করে ক্যাপশানে স্বস্তিকা লিখেছিলেন, ‘আমার ওড়ার জন্য ডানা লাগবে না, আমার নেড়া মাথাই যথেষ্ট’। ব্যাস পোস্ট হতে দেরী নেটিজেনদের একাংশ আক্রমণ করতে শুরু করেন অভিনেত্রীকে। স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়ের চুলের নানান ধরনের প্রশ্ন করতে থাকে সকলে।

এমনকি তাঁর ক্যানসার হয়েছে কিনা এমন প্রশ্ন করতেও কেউ কেউ পিছপা হননি। যদিও কড়া জবাব দিতে ছাড়েনি স্বস্তিকা। পাল্টা জবাবে স্বস্তিকা লেখেন, ‘না আমার ক্যানসার হয়নি (প্রার্থনা করি যেন কোনওদিনও না হয়) আমি ড্রাগ নিই না, ধূমপান করি না, আমি কখনও পুনর্বাসন কেন্দ্রেও যাই নি। এটা আমার মাথা, আমার চুল, আমি এর সঙ্গে যা ইচ্ছা হয় করতে পারি, করবও। আশাকরি সবাই সব প্রশ্নের উত্তর পেয়ে গেছেন’।