×

মেয়ের বয়সি অভিনেত্রীর সাথে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক থেকে নিজের মেয়ের সঙ্গে লিপলক! কেচ্ছার শেষ নেই মহেশ ভাটের

হিন্দু বাবা নানাভাই ভট্ট এবং মুসলিম মা শিরিন মোহাম্মদ আলীর সন্তান মহেশ ভাট

বলিউডের অন্যতম জনপ্রিয় এই পরিচালকের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে শেষ নেই বিতর্কের। বিশেষত স্ত্রী,মেয়ে ও স্বল্প বয়স্কা অভিনেত্রীদের সাথে তার বিতর্কিত ঘটনা হামেশাই সামনে এসেছে আর সেই কারণে বর্তমানে বয়কট এর জেরে রীতিমতো মুভি জগৎ থেকে নিজেকে গুটিয়ে নিয়েছেন মহেশ ভাট। বছর দুয়েক আগে রিয়া চক্রবর্তীর সাথে তার অন্তরঙ্গ মুহূর্তের ছবি ভাইরাল হওয়া থেকে শুরু করে স্বীয়কন্যা পূজা ভাটের সাথে লিপলক। এমনকি বিবাহিত থাকাকালীন অপর সম্পর্কে জড়িয়ে যাওয়া,প্রভৃতি নানান ঘটনা সম্পর্কে আজ আমরা আমাদের এই প্রতিবেদনের মাধ্যমে আপনাদেরকে অবগত করতে চলেছি।

হিন্দু বাবা নানাভাই ভট্ট এবং মুসলিম মা শিরিন মোহাম্মদ আলীর সন্তান তিনি। জানা যায়,বাবার নামে নামকরণ হয়েছিল মহেশ ভাট। তবে খুব একটা সুখকর হয়নি জীবন,খুব শীঘ্রই বাবা পৃথিবী ছেড়ে একা রেখে চলে যান তাদের। এরপর জীবনে আসে প্রথম প্রেম কিরণ! কিরনকে বিয়ে করার পর তার সাথে দুই সন্তান পূজা ভাট এবং রাহুল ভাট জন্ম নেয়। তবে সেই সময় বিবাহিত সম্পর্কতে থাকাকালীন বলিউডে নবাগতা সোনি রাজদানের উপর তার হৃদয় লুণ্ঠিত হয়।

জানা যায়,ডিভোর্সবিহীন অবস্থায় কেবলমাত্র মুসলিম ধর্মে দীক্ষিত হওয়ার মাধ্যমে সেই সময় সোনি রাজদানকে বিয়ে করেন মহেশ এবং পরবর্তীকালে তাদের সন্তান আলিয়া ভাটের জন্ম হয়। এতো গেল বিবাহিত জীবন! পরবর্তীতে নিজের হাঁটুর বয়সী 26 বছরের রিয়া চক্রবর্তীর সাথে 70 বছর বয়সী মহেশ ভাটকে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়তে দেখা যায়। বছর দুয়েক আগে তাদের একাধিক ঘনিষ্ট ফটো তুমুল ভাইরাল হয়। তবে সেইসময় অভিনেত্রী পরিচালককে নিজের পিতৃতুল্য বলে সবার সামনে স্বীকার করলেও সেকথা মানতে নারাজ ছিলেন সকলে।

মেয়ের বয়সি অভিনেত্রীর সাথে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক থেকে নিজের মেয়ের সঙ্গে লিপলক! কেচ্ছার শেষ নেই মহেশ ভাটের

এছাড়াও নিজের জ্যেষ্ঠকন্যা পূজা ভাটের সাথে একরকম ম্যাগাজিনের কাভারের ফটোশুটের উদ্দেশ্যে অন্তরঙ্গ হয়ে লিপলক করে বসেন তিনি। এখানেই শেষ নয় সেখানে তিনি আরও যোগ করে বলেন পূজা যদি আমার মেয়ে না হতো তাহলে আমি ওকে বিয়ে করে নিতাম। স্বাভাবিকভাবেই পরিচালকের এহেন বিতর্কিত মন্তব্যে সেইসময় হতভম্ব হয়ে গিয়েছিল সারা ভারতবাসী!