বিনোদন

Dhulokona: রক্ত দিয়ে সিঁদুরদান করলে সেটা নিয়ে চর্চা হয় না, মুখ খুললেন ‘ধূলোকণা’র ফুলঝুরি

সিঁদুরের পরিবর্তে তিতিরকে লিপস্টিক পরিয়ে বিয়ে করেছিল লালন। ব্যস! সমালোচনার ঝড় সোশ্যাল মিডিয়ায়। অনেকে যেমন বিষয়টিকে বলেছেন গল্পের গোরু গাছে ওঠে, আবার অনেকে বলেছেন ধারাবাহিকে মানেই এখানে সবকিছু সম্ভব। কথা হচ্ছে ‘ধূলোকণা’ (Dhulokona) ধারাবাহিকের, যেখানে কিছুদিন আগেই দেখানো হয় বিয়ের সময় সিঁদুরের পরিবর্তে লিপস্টিক পরানো হচ্ছে।

যে বিষয়টি দেখার পরে তুমুল ট্রোলিংয়ে ভরে গিয়েছিল সোশ্যাল মিডিয়া। তবে সেই বিষয়ে এবার মুখ খুলেছেন অভিনেত্রী মানালি দে(Manali Dey)। তিনি একটি সংবাদমাধ্যমের কাছে বলেন, ‘যারা বিষয়টি নিয়ে মজা করছেন তারা আসলে ভালোভাবে বোঝেননি। তিতির আর লালনের বিয়েটা সত্যি ছিল না। লালনকে সুস্থ করার জন্য বিয়ের নাটক করা হয়েছিল। সে কারণেই লিপস্টিকের ব্যবহার।’

তবে এরকম বিয়ে দেখিয়েও কিন্তু সপ্তাহের সেরা হয়েছে ‘ধূলোকণা’। আর এই সাফল্যে ভীষণ খুশি মানালি। তিনি এর কৃতিত্ব দিয়েছেন লেখিকা লীনা গাঙ্গুলিকে। জানিয়েছেন, ‘এইসব কৃতিত্ব লীনা’দির। উনি আসলে জানেন কীভাবে গল্পের মোড় ঘুরিয়ে আনতে হয়। তাই আমি এর জন্য ধন্যবাদ জানাতে চাই।’ একইসাথে তিনি আরো জানান, পর্দায় অনেক সময় রক্ত দিয়ে সিঁদুরদান হয় কিন্তু সেটা নিয়ে চর্চা হয় না।

উল্লেখযোগ্য, শুধুমাত্র এই ধারাবাহিকেই নয় এমন বিভিন্ন ধারাবাহিক উঠে এসেছে যেখানে অদ্ভুত রকমের কাণ্ডকারখানা দেখা দিয়েছে। কখনো সিঁদুর উড়ে গিয়ে বিয়ে হচ্ছে, আবার কখনো গায়ে হলুদ ছিটকে বিয়ের রীতি হয়ে যাচ্ছে। একইসাথে তিন-চারটে বিয়ে তো রয়েছেই। এমন কোনো ধারাবাহিক পাওয়া যাবে না সেখানে তিন-চারবার বিয়ে হয়নি নায়ক বা নায়িকার। আসলে ধারাবাহিকের কাহিনীই ট্রোলিংয়ের সুযোগ করে দেয়।

Related Articles