বিনোদন

মা হওয়ার পরও কমেনি জেল্লা, নিজের সৌন্দর্য ধরে রাখতে এই ছোট্ট কাজ করেন বিরাট পত্নী অনুষ্কা

অভিনেত্রীরা নিজেদের বয়সকে যেন বেঁধে দেন। আর এই রকমই বয়সকে থমকে দাঁড় করিয়েছেন একজন অভিনেত্রী যার নাম অনুষ্কা শর্মা। বলিউডের প্রথম শ্রেণীর অভিনেত্রীদের মধ্যে অন্যতম হলেন অনুষ্কা শর্মা। ৩৪ বছরই বয়সী এই অভিনেত্রীকে দেখলে আজও মনে হবে কোনো অষ্টাদশী নারী। মেয়ে ভামিকা হবার পরেও তার সৌন্দর্য এতোটুকু কমেনি, বরং যেন দিন দিন আরো সুন্দর হয়ে উঠছেন বিরাট পত্নী। তবে এবার অনুষ্কা জানালেন নিজের রূপচর্চার নানা রহস্য।

সম্প্রতি একটি বিউটি এবং ফ্যাশন ম্যাগাজিনের সাক্ষাৎকারে অনুষ্কা জানালেন তাই রূপচর্চার কিছু টিপস। জানালেন, কিভাবে ঘরোয়া কিছু উপাদান দিয়ে পাওয়া যায় সুন্দর মোলায়েম ত্বক। অনুষ্কার মতো টানটান উজ্জ্বল ত্বক পেতে গেলে শেষ পর্যন্ত পড়ুন প্রতিবেদনটি।

অনুষ্কা রূপচর্চার জন্য যেই উপাদানটিকে বেছে নিয়েছেন সেটি হল কলা। কলার গুনাগুন সম্পর্কে আমরা সকলেই অবগত। তবে অনুষ্কা জানালেন কিভাবে কলা আমাদের ত্বকের জন্যও সমানভাবে উপযোগী। অনুষ্কা জানিয়েছেন তিনি ত্বক ভালো রাখার জন্য ব্যবহার করেন কলা। এছাড়াও তিনি জানিয়েছেন বিভিন্ন ধরনের স্কীন টাইপে কিভাবে কলার ব্যবহার করতে হবে।

তৈলাক্ত ত্বকের জন্য: যাদের ত্বকে কিছুটা তৈলাক্ত ভাব রয়েছে তারা কলা চটকে নিয়ে তার মধ্যে সঙ্গে হাফ চামচ লেবুর রস মিশিয়ে মুখে গলায় লাগিয়ে ১০ মিনিট পর ঠান্ডা জল দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন। সপ্তাহে একদিন এই ফেসপ্যাকটি ব্যবহার করতে পারেন। কিছুদিন এই ফেসপ্যাকটি ব্যবহার করলে ধীরে ধীরে নিজেরা বুঝতে পারবেন পরিবর্তন।

শুষ্ক ত্বকের জন্য: যাদের শুষ্ক ত্বক রয়েছে তারা কলার সঙ্গে দুই চামচ টক দই মিশিয়ে ১০ মিনিট মুখে লাগিয়ে রেখে জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এটি আপনার ত্বকের ডেড সেল গুলিকে দূর করে ত্বককে আরো সজীব ও উজ্জ্বল করে তুলবে।

কম্বিনেশন স্কীন: যাদের স্কিন পুরোপুরি তৈলাক্ত নয়, আবার শুষ্কও নয় অর্থাৎ কম্বিনেশন। তারা কলার সঙ্গে এক টেবিল চামচ অ্যালোভেরা জেল এবং তিন ফোঁটা টি ট্রি অয়েল মিশিয়ে সপ্তাহে একদিন মুখে লাগাতে পারেন। কিছুদিন এই ঘরোয়া টোটকা ব্যবহার করলেই আপনার ত্বকের পার্থক্য বুঝতে পারবেন।