বিনোদন

এক-দুবার নয়, বারবার শারীরিক নির্যাতনের শিকার হয়েছিলেন ঐশ্বর্য! আজও সহবাসের যন্ত্রণা তাড়া করে বেড়ায় রাই সুন্দরীকে

"হাম দিল দে চুকে সানাম" সিনেমার শুটিং চলাকালীন একে অপরের সাথে ডেটিংয়ে মত্ত হয়েছিলেন রাই সুন্দরী ও সালমান খান

বলিউডের নবাগতা বিশ্বসুন্দরী ক্যারিয়ার ছিল তখন মধ্যগগনে এমন সময় মাত্র 21 বছর বয়সী ঐশ্বর্য রাই প্রেমে পড়েছিলেন বলিউডের মোস্ট হ্যান্ডসাম বয় সালমানের সাথে। মাত্র দু’বছর একে অপরের সাথে সম্পর্কে থাকার পর অবশেষে বিচ্ছেদ হয়ে যায় তাদের। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া ঐশ্বর্য্যের এক সাক্ষাৎকারের ক্লিপিং বলছে অন্য কথা! প্রেমেমত্ত ঐশ্বর্য্যের বয়ানে বলিউডের সেক্সিয়েস্ট তকমা মিলেছিল সালমানের।

“হাম দিল দে চুকে সানাম” সিনেমার শুটিং চলাকালীন একে অপরের সাথে ডেটিংয়ে মত্ত হয়েছিলেন রাই সুন্দরী ও সালমান খান। তবে জানা যায়,তাদের প্রেমের সম্পর্ক কিছুদিন ভালো চললেও তারপর থেকে সালমানের অতিরিক্ত পজেসিভনেস এবং ব্যক্তিগত জীবন ও কেরিয়ারের ক্ষেত্রে ঐশ্বর্যকে বারবার বাধা প্রদান মোটেই ভাল ভাবে মেনে নেননি রাই সুন্দরী। ফলতঃ তাদের ফুলের বাগানের মত প্রেম ভেঙে যায়।

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে সিমি গারেওয়াল পরিচালিত শো এর একটি ভিডিও ক্লিপ যেখানে 21 বছর বয়সী ঐশ্বর্য্য সালমান খানকে বলিউডের সেক্সিয়েস্ট তকমা দিয়েছেন। তবে প্রেমে মত্ত সেইসময়কার যুবতী রাই সুন্দরী তখনও জানতেন না ভবিষ্যৎ। পরবর্তীতে শারীরিক নির্যাতনের শিকার হতে হয় ঐশ্বর্য্যকে। এক এওয়ার্ড শোতে সানগ্লাস পড়ে পুরষ্কার নিতে উপস্থিত হয়েছিলেন নায়িকা। পরবর্তীতে অবশ্য অভিনেত্রী স্বীকার করেছিলেন সেই সময় সালমানের কর্তৃক শারীরিক নির্যাতনের শিকার হয়েছিলেন তিনি।

শুধু তাই নয় সালমান খান ঐশ্বর্য্যকে বিবাহ করার ইচ্ছা প্রকাশ করলে সেই প্রস্তাব নাকচ করে দেন অভিনেত্রী। এমনকি অভিনেত্রীর পরবর্তী প্রেমিক বিবেক ওবেরয়কে ফোন করে হুমকি দেওয়া থেকে শুরু করে প্রাণনাশের পর্যন্ত চেষ্টা চালান সালমান খান। তবে সেসব এখন অতীত বর্তমানে একে অপরের সাথে দুরুত্ব বজায় রেখে চলেন তারা। একদিকে রাই সুন্দরী নিজের স্বামী সংসার নিয়ে যেমন রয়েছে অন্যদিকে সালমান খান এগিয়েছেন নিজের জীবন নিয়ে।

Related Articles