বিনোদন

সোনু সুদের পর এবার অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়ালো জ্যাকলিন, প্রশংসার ঝড় নেট দুনিয়ায়

Advertisement

করোনা কাঁটায় কাবু গোটা বিশ্ব তথা দেশ। কিছুদিন আগেই করোনা সংক্রমণ এড়াতে দেশ জুড়ে ডাকা হয়েছিল লকডাউন। আর এই লকডাউনের জেরে আর্থিক সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়েছে বহু মানুষকে। সবথেকে বেশি সমস্যায় পড়েছে দিন আনে দিন খায় মানুষ গুলো। করোনা পরিস্থিতিতে বিভিন্ন সময়ে সাধারণ মানুষের পাশে এসে তারকাদের দাঁড়াতে দেখা গিয়েছে। এবার শুধু দাঁড়ানোই নয় গোটা দুটি গ্রামের সম্পূর্ণ দায়িত্ব নিজের কাঁধে তুলে নিলেন অভিনেত্রী জ্যাকলিন ফার্নান্ডেজ।

করোনা কবলিত কঠিন পরিস্থিতিতে মহারাষ্ট্রের পাথারডি এবং সাকুর নামে দুটি গ্রামের দায়িত্বভার গ্রহণ করলেন অভিনেত্রী জ্যাকলিন। বলিউডের অন্দরমহল নিয়ে নানান সময় নানান ধরনের কথা উঠে। কখন উঠেছে স্বজনপোষনের অভিযোগ আবার কখনো উঠেছে তারকাদের চরিত্র নিয়ে বিভিন্ন কথা। কিন্তু এরই মাঝে এবার দৃষ্টান্ত ঘটালেন অভিনেত্রী জ্যাকলিন। নিজের জন্মদিনে নিজের আনন্দের কথা না ভেবে সাধারণ মানুষের পাশে গিয়ে দাঁড়ায় অভিনেত্রী। গত ১১ আগস্ট ছিল অভিনেত্রীর জন্মদিন। আর সেই উপলক্ষেই দুস্থদের পাশে দাঁড়ানোর সংকল্প করেন জ্যাকলিন।

এই প্রসঙ্গে অভিনেত্রী জ্যাকলিন বলেন, ‘আমরা ভাগ্যবান আমাদের প্রাথমিক চাহিদাগুলো নিয়ে ভাবতে হয় না কিন্তু সমাজে একটি শ্রেণী আছে যারা খুব কষ্টে দিন কাটাচ্ছে। আর বর্তমানের পরিস্থিতিতে খারাপ অবস্থা অনেকের। আগামী ৩ বছরের জন্য ওই গ্রামের মানুষদের অন্ন সংস্থানের পাশাপাশি, শিশুরা যাতে অপুষ্টিতে না ভোগে, সেদিকে নজর দেওয়া হবে। বহু দিন ধরেই এমন একটা পরিকল্পনা ছিল যে দুস্থদের পাশে দাঁড়াব। আর এখন অতিমারীর প্রকোপে অনেকেরই খারাপ অবস্থা’।

জানা যাচ্ছে, শুধু দায়িত্বই নেয়নি অভিনেত্রী নারীদের স্বাস্থ্য সচেতনার প্রচারের ব্যবস্থা করা হয়েছে ওই গ্রামে। আর তার জন্য গ্রামেরই ১৫০ জন মহিলাকে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। দুটি গ্রামের সবমিলিয়ে মোট দেড় হাজার বাসিন্দার প্রত্যেকের অন্নসংস্থানের দায়িত্ব নিয়েছেন জ্যাকলিন। জ্যাকলিনের প্রজেক্টের সুবাদে মোট ২০টি কিচেন গার্ডেনও তৈরি করা হচ্ছে ওই দুই গ্রামে। ওই দুই গ্রামের অনেকেই অপুষ্টির শিকার। অনেকেরই চরম সমস্যা টাকা পয়সার। এই কঠিন পরিস্থিতিতে অনেকের বাড়িতেই চড়ছিল না হাঁড়ি। আর তাই সাধারণের পাশে মানবিক রূপ নিয়ে দাঁড়ালেন জ্যাকলিন।

Tags

Related Articles

Close